আমরা মহেশখালীর কথা বলি..

মহেশখালীতে এসএসসি সমমানের প্রথমদিনের পরীক্ষা, ৩৪ পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত - মহেশখালীর সব খবর

মহেশখালীতে এসএসসি সমমানের প্রথমদিনের পরীক্ষা, ৩৪ পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত

রকিয়ত উল্লাহ।। দেশজুড়ে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষা আজ থেকে শুরু হয়েছে। এ পরীক্ষা চলবে ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত। প্রতিবছর ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে এসএসসি পরীক্ষা শুরু হলেও বৈশ্বিক মহামারি করোনার কারণে প্রায় দেড় বছর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় এবার যথাসময়ে পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হয়নি। বর্তমানে করোনায় আক্রান্তের হার সহনীয় মাত্রায় পৌঁছানোয় পুনর্বিন্যাস করা সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এবার দেড় ঘণ্টায় এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বিশেষ তিনটি বিষয়ের ওপর পরীক্ষা নেওয়া হবে। এ বিষয়গুলোর ফলাফল মূল্যায়ন করে ফল প্রকাশ করা হবে। 

সারাদেশের মত মহেশখালীতেও প্রথম দিনের পরীক্ষা সুষ্ঠু ভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এসএসসি মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের এসএসসি, দাখিল, এসএসসি (ভোকেশনাল) পরীক্ষায় বিপুল পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। তবে সম্মিলিত ভাবে ঠিক কতোজন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে সে তথ্য জানাতে পারেনি উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস। মহেশখালীতে এবার মোট ৮টি কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রথম দিনে ১৩৭৯ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৩৪ জন পরীক্ষার্থী কেন্দ্রে অনুপস্থিত ছিল। সুষ্ঠু পরিবেশে পরীক্ষা অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে সক্রিয় রয়েছে উপজেলা প্রশাসন। 

প্রথম দিন মহেশখালীর বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে শিক্ষার্থীরা উৎসবমুখর পরিবেশে পরীক্ষা দিচ্ছে। করোনাকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই নেওয়া হচ্ছে পরীক্ষা। দীর্ঘদিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার পর এবারের পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষক-অভিববকের মাঝেও বেশ উদ্দীপনা লক্ষ্য করা গেছে। 

প্রথম দিনে মহেশখালীতে মোট ৩৪ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষা কেন্দ্রে অনুপস্থিত ছিলেন, তৎমধ্যে দাখিল পরীক্ষায় ২৭ জন, এসএসসিতে ৫ জন ও এসএসসি ভোকেশনালে ২ জন পরীক্ষার্থী কেন্দ্রে আসেনি। 

২০২১ সালের সংশোধিত ও পুনর্বিন্যাস করা সিলেবাসে গ্রুপভিত্তিক তিনটি নির্বাচনিক বিষয়ে পরীক্ষা হবে। নিয়মিত পরীক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে শারীরিক শিক্ষা, স্বাস্থ্যবিজ্ঞান ও খেলাধুলা এবং ক্যারিয়ার শিক্ষা বিষয়ে এনসিটিবির নির্দেশনা অনুসারে ধারাবাহিক মূল্যায়নের মাধ্যমে প্রাপ্ত নম্বর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রকে সরবরাহ করা হবে। সংশ্লিষ্ট কেন্দ্র ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বরের সঙ্গে ধারাবাহিক মূল্যায়নে প্রাপ্ত নম্বর অনলাইনে বোর্ডে পাঠাবে।


No comments

Powered by Blogger.