আমরা মহেশখালীর কথা বলি..

মহেশখালীর অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকরা সংবর্ধিত হয়ে বেশ আনন্দিত - মহেশখালীর সব খবর

মহেশখালীর অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকরা সংবর্ধিত হয়ে বেশ আনন্দিত


বার্তা পরিবেশক।। মহেশখালী পেশাজীবী সমিতি লিমিটেডের উদ্যোগে মহেশখালী উপজেলার অবসরপ্রাপ্ত সকল সম্মানিত শিক্ষকদের বিশাল সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। ৩১ ডিসেম্বর শুক্রবার সকাল ১০ ঘটিকায় মহেশখালী মডেল হাইস্কুল মাঠে মনমুগ্ধকর আয়োজনের মাধ্যমে এই অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। এই অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি, পরিবেশ বিজ্ঞানী ও বিভিন্ন স্তরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ, সুপার, প্রভাষক, প্রধান শিক্ষক, সহকারী শিক্ষক সহ অবসরপ্রাপ্ত ১৬০জন সম্মানিত শিক্ষকদের ক্রেস্ট ও উপহার দিয়ে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

প্রধান আলোচকের বক্তব্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর ড.শিরিন আক্তার বলেন ” অপার সম্ভাবনাময় এই দ্বীপে সরকারের বিশেষ নজর থাকার কারণে এই দ্বীপটি নতুনভাবে সাজানো হচ্ছে। দ্বীপটির প্রাকৃতিক সম্পদের সাথে সমন্বয় রেখে সোনাদিয়া ইকো ট্যুরিজম পার্ক, ধলঘাটা অর্থনৈতিক অঞ্চল, এসপিএম প্রকল্প এবং মাতারবাড়ি কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্প এ দ্বীপকে বিশ্বের দরবারে অনেক এগিয়ে নিয়ে যাবে। এই দ্বীপের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন হতে খুব বেশি দেরি নেই। অবসর প্রাপ্ত সম্মানিত শিক্ষকদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে তিনি আরো বলেন – প্রাথমিক স্তর থেকে শুরু করে উচ্চস্তর পর্যন্ত সকল শিক্ষকগণ আমাদের জাতি গঠনে যে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে, এ পরিশ্রমের কারনেই আজ আমি, আমরা সবাই উচ্চ শিখরে আরোহণ করার সুযোগ পেয়েছি। শ্রদ্ধা চিত্তে সকল শিক্ষকদের প্রতি বিনীত সম্মান জ্ঞাপন করছি। তিনি স্থানীয় সাংসদ আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিকের দৃষ্টি আকর্ষণ করে মহেশখালীবাসীর একান্ত দাবি মহেশখালী- কক্সবাজার সেতু যেন দ্রুত বাস্তবায়ন করা হয় সেজন্য দৃড় প্রস্তাব এবং কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার অনুরোধ করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাংসদ আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিক এমপি বলেন- মহেশখালী পেশাজীবি সংগঠন মহেশখালীর আপামর জনসাধারণের কল্যাণে নীরবে নিভৃতে কাজ করে যাচ্ছে। মহান শিক্ষকদের সংবর্ধনা দিয়ে তারা তাদের কার্যক্রমকে আরও বেশি গতিশীল করে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। মহেশখালী পেশাজীবী সংগঠনের সকল সদস্যের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফসল হিসেবে আজকে আমরা আমাদের সম্মানিত শিক্ষকদের সংবর্ধনা দিতে পেরে আমি আনন্দিত বোধ করছি। আমি আশা করছি মহেশখালী পেশাজীবি সংগঠন মহেশখালীবাসীর বিপদে-আপদে সবসময় পাশে থাকবে। মহেশখালীবাসী পারাপারের জন্য
মহেশখালী-কক্সবাজার সেতু বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছি, আপনারা দোয়া করবেন যাতে বর্তমান সরকারের আমলেই আমি মহেশখালী কক্সবাজার সেতুটি দ্রুত পাশ করিয়ে নিতে পারি। ইনশাল্লাহ দেশরত্ন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা মহেশখালী বাসীকে সেতু দিয়ে একটি অমর দৃষ্টান্ত রাখবে।

মহেশখালীর সন্তানদের নিয়ে গঠিত মহেশখালী পেশাজীবী সমিতি লিমিটেডের আয়োজনে এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহশেখালী- কুতুবদিয়ার সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিক এমপি, প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত ভাইস চ্যাঞ্চেলর ড. শিরিন আক্তার, উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা), জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার, মহেশখালীর কৃতিসন্তান অতিরিক্ত জেলা জজ এরফান উল্লাহ, মহেশখালীর কৃতিসন্তান সহযোগী অধ্যাপক ডাক্তার ফাহমিদা আক্তার, মহেশখালীর কৃতিসন্তান চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনৈতিক বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মুহাম্মদ ইসহাক, সদ্য বিদায়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাহফুজুর রহমান, উক্ত অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন মহেশখালীর কৃতি সন্তান মহেশখালী পেশাজীবী সমিতি লিমিটেডের সভাপতি ও অতিরিক্ত সচিব জনাব আবুল হাশেম।

এছাড়াও উক্ত অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কক্সবাজার জেলার উপদেষ্টার ডাক্তার নুরুল আমিন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কক্সবাজার জেলার সহ-সভাপতি এম আজিজুর রহমানসহ রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রধান ও সমিতির সকল সদস্যবৃন্দ। 

রিপোর্টঃ আ ন ম হাসান

No comments

Powered by Blogger.