আমরা মহেশখালীর কথা বলি..

শাপলাপুরে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের প্যানেল চেয়ারম্যানের নগদ টাকা ও কম্বল বিতরণ - মহেশখালীর সব খবর

শাপলাপুরে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের প্যানেল চেয়ারম্যানের নগদ টাকা ও কম্বল বিতরণ

গাজী মোহাম্মদ আবু তাহের।। মহেশখালীর শাপলাপুর ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের মিঠাকাটা হিন্দু পাড়ায় আজ এক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে ৪টি বসতবাড়ি সম্পূর্ণ পুড়ে ছাই হয়েগেছে। পাশের আরও কয়েকটি বসতবাড়ি, ক্ষয়ক্ষতিও হয়েছে বলে জানাগেছে। অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে মহেশখালী ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে উপস্থিত হওয়ার আগেই গ্রামবাসীরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এদিকে অগ্নিকাণ্ডের খবর শুনে ঘটনাস্থলে দ্রুত ছুটে যান স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও শাপলাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন। এ সময় তিনি ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে তাৎক্ষণিক ত্রাণ হিসেবে নগদ টাকা কম্বল বিতরণ করেন। 

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়-১৫ ফেব্রুয়ারি (সোমবার) সন্ধ্যায় সাড়ে ৭ টার দিকে সমবু দে,এর বাড়ির রান্নার ঘরের চুলা থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়ে মুহূর্তে তা ছড়িয়ে পড়ে । কিছু বুঝে ওঠার আগেই পুড়ে যায় অন্ততঃ ৪টি বাড়ি। পরে স্থানীয় বাসিন্দারা দীর্ঘ চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। এতে এ ৪টি বাড়িছাড়াও পাশের আরও কয়েকটি বসতবাড়ি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। 

আগুনে পুড়ে যাওয়া বাড়ির মালিকদের মধ্যে রয়েছে ওই গ্রামের বাসিন্দা সমবু দে, বাসি দে, প্রবাদ দে ও কালু দে প্রমুখ। মহেশখালী সদর থেকে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌছার আগেই গ্রামবাসীরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন বলে জানাগেছে । 

এদিকে শাপলাপুর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন স্থানীয় সাংসদ আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিকের পক্ষ থেকে আগুনে পুড়ে যাওয়া ৪টি বাড়ীর মালিকদের নগদ ২ হাজার টাকা করে তাৎক্ষণিক অর্থ সহায়তা দেন। বাড়ির প্রতিটি সদস্যকে প্রত্যেককে ১টি করে কম্বল বিতরণ করেন। ক্ষতিগ্রস্তরা তাৎক্ষণিক অনুদান হিসেবে প্যানেল চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিনের দেওয়া নগদ টাকা ও শীতের কম্বলগুলো পাওয়ায় খুবই উপকৃত হয়েছেন বলে জানান তারা।

ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির লোকজন জানান, এই বিপদের সময় আমাদের এমপি আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিকের পক্ষথেকে প্যানেল চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন নগদ অর্থ ও এই শীতের রাতে কম্বল নিয়ে আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। এতে তারা বেশ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। 

No comments

Powered by Blogger.