-->
মহেশখালীতে আদালতের আদেশ উপেক্ষা করে দখল,  মালিক আহত

মহেশখালীতে আদালতের আদেশ উপেক্ষা করে দখল, মালিক আহত

মহেশখালীতে আদালতের আদেশ উপেক্ষা করে জমি দখল করে বাড়ি নির্মাণ, হামলায় জমি মালিক আহত

বার্তা পরিবেশক ।। মহেশখালীর কালারমার ছড়ার উত্তর নলবিলা এলাকায় আদালতের আদেশ উপেক্ষা করে জমি দখল পূর্বক বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে। এ সময় বাঁধা দিতে গেলে দখলদারদের হামলায় জমির মালিক আহত হয়েছে বলে সূত্রে প্রকাশ। এ নিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত ও আহতরা মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানাগেছে। আহতকে প্রথমে মহেশখালী ও পরে কক্সবাজার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। 

লিখিত এজাহার সূত্রে জানাগেছে -উপজেলার কালারমার ছড়া উত্তর নলবিলা মৌজার বিএস ৯৫ নম্বর খতিয়ানের ২২৬১, ২২৬৩, ২২৬৪, ২৩৬৭ ও ২৩৯৩ দাগের ৭৬ শতক জমি উত্তর নলবিলা দরগাহ ঘোনা এলাকার মৃত আমির হোসেন এর সন্তান ওবাইদুল ইসলাম প্রকাশ কালাবদা গং এর পৈত্রিক স্বত্বিয় জমি হয়। এ জমি মাতারবাড়ির মিয়াজির পাড়া এলাকার জনৈক জমির উদ্দিন গং অতিলোভের কারণে জোরপূর্বক দখলের চেষ্টা চালিয়ে আসছিল। এ অবস্থায় ওবাইদুল ইসলাম বাদি হয়ে মাতারবাড়ির মৃত মোঃ আলীর পুত্র জমির উদ্দিন, কালারমার ছড়া দরগাহ ঘোনা এলাকার মৃত নজু মিয় পুত্র হেলাল উদ্দিন, বালুর ডেইল এলাকার আমান উল্লাহর পুত্র রুহুল কাদের ও মোজাফ্ফর আহমদ এর পুত্র মোঃ রুবেলসহ তাদের সহযোগীদের বিবাদী করে বিজ্ঞ মহেশখালী সহকারী জজ আদালত কক্সবাজার এ একটি মামলা দয়ের করেন। মামলা নং অপর ৩৯/২০২১ । এ মামলা মূলে নিষেধাজ্ঞার আবেদন করলে আদালত গত ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২১ তারিখে অর্ন্তবর্তিকালীন নিষেধাজ্ঞার আদেশ দ্বারা বর্ণিত মামলার বিবাদিদের বারিত করেন। 

এতে বিবাদিরা ক্ষিপ্ত হয়ে এ জমি জবর দখলে মরিয়া হয়ে ওঠে। এরই ধারাবাহিকতায় বিবাদিরা জমির উদ্দিন এর নেতৃত্বে আরও ৪-৫ জন অজ্ঞাত লোক নিয়ে ওই জমি দখল করে বাড়ি নির্মাণের জন্য পাকা দেয়া তুলতে থাকে। এ সময় তারা দা, লোহার রড, হাতুড়ি ও লাঠিসোটা নিয়ে আদালেতের আদেশ উপেক্ষা করে তপশেীলের জমি অপদখলের চেষ্টা চালায়। খবর পেয়ে জমির মালিক ওবাইদুল ইসলাম প্রকাশ কালাবদা গিয়ে দখলদারদের বাধা দেয়। এ সময় জমির উদ্দিন এর নেতৃত্বে ও হকুমে কালারমার ছড়া দরগাহ ঘোনা এলাকার মৃত নজু মিয় পুত্র হেলাল উদ্দিন, বালুর ডেইল এলাকার আমান উল্লাহর পুত্র রুহুল কাদের, নজু মিয়ার পুত্র কামরুল ইসলাম প্রকাশ রুমা ও মোজাফ্ফর আহমদ এর পুত্র মোঃ রুবেলসহ অন্যান্য হামলাকারিরা জমির মালিক ওবাইদুল ইসলাম উপর ব্যপক হামলা চালায়। লিখিত এজাহারে বলা হয় তাকে খুন করার উদ্দেশ্যে করা হমলায় তিনি বাম উরু ও পিটে গুরুতর আহত হয়। এ সময় হামলাকারীরা তাকে মটিতে ফেলে চেপে ধরে গলা টিপে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা চালায়। হামলাকারীরা এ সময় ব্যপক গালিগালাজ করে এবং জমি মালিকদের নানা প্রকার হুমকী দেয় বলে সূত্রেরঅভিযোগ। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। 

একাধিক হামলাকারী হত্যাসহ বিভিন্ন মামলার আসামী বলে এজাহারে উল্লেখ। আহতের পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে ঘটনার সময় তাদের কাছ থেকে বিভিন্ন জিনিস লুট করে নেয় হামলাকারীরা। বর্তমানে তারা দখলদারদের হুমকীর মুখে রয়েছে উল্লেখ করে আহতের ভাই মোঃ কাউছার জানান -হামলাকারীরা প্রভাবশালী হওয়ায় তারা বেশ নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে রয়েছে। এ নিয়ে তারা দ্রুত প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। 

শিরোনাম ছিলো.. "মহেশখালীতে আদালতের আদেশ উপেক্ষা করে দখল, মালিক আহত"

Post a Comment

Iklan Atas Artikel

Iklan Tengah Artikel 1

Iklan Tengah Artikel 2

Iklan Bawah Artikel