মগরিয়াকাটা মসজিদের ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনাঃ ফাঁকা গুলিবর্ষণের অভিযোগ


আ ন ম হাসান।।
গত ১৩ ডিসেম্বর বড় মহেশখালীর মগরিয়াকাটা জামে মসজিদের জমি নিলাম, দানের টাকা আত্মসাতের অভিযোগকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের মাঝে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে ৷ এ নিয়ে থানায মামলা ও একাধিকজন গ্রেফতার হয়। এদিকে এ ঘটনার জের ধরে এলাকায় নতুন করে উত্তেজনা সৃষ্টি হচ্ছে এবং এলাকায় ফাঁকা গুলি বর্ষণ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়াগেছে। 

সূত্র জানায় -সে সময় স্থানীয় সৈয়দ হোসেন নামে এক বৃদ্ধকে এলোপাতাড়ি মারধরসহ চোখে চুরিকাঘাত করে  মারাত্মকভাবে জখম করে প্রতিপক্ষের লোকজন। তিনি একই এলাকার মৃত খলিলুর রহমানের পুত্র ৷ সেদিন স্থানীয় আবুল হোসেনের মুদি দোকানের সামনে ঘটনাটি ঘটে বলে জানা যায় ৷

এ ঘটনায় বৃদ্ধার সন্তান তারেক হোসাইন বাদি হয়ে মহেশখালী থানায় একই এলাকার মমতাজ আহমদ প্রকাশ মনতাইজ্জ্যে, নাজিম উদ্দিন প্রকাশ নাজ্জু ডাকাত, সাবের হোসেন, অনছারুল করিমক, মঞ্জুর আলম, নুরুল আবছার প্রকাশ বাঁশি মনুকে আসামি করে মামলা করে ৷ এ মামলায় মমতাজ ও নাজেম উদ্দিন নামের দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতারও করে মহেশখালী থানা পুলিশ ৷

মামলার বাদি জানান - এ মামলার অপর দুই আসামি সাবের ও আনছার গতকাল আদালত হতে জামিন নিয়ে মুক্ত হয়, পরে তারা প্রকাশ্যে এসে অপরাপর আসামিদের সাথে মিলে তাদেরকে ভয়ভীতি ও ধারাবাহিক ভাবে হুমকি দিয়ে যাচ্ছে, প্রকাশ্যে অবৈধ অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে মহড়া দিচ্ছে বলেও অভিযোগে প্রকাশ। 

এ অবস্থায় তারা বেশ নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে উল্লেখ করে পরিবারটি প্রশাসনের দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করেন ৷

এদিকো স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী মৌলানা কামাল, মতিউর রহমান, আমান উল্লাহ জানান -মামলার আসামিরা দিনভর থেমে থেমে নানা জায়গা হতে ফাঁকা গুলিবর্ষণ করে ভীতিকর পরিস্থিতি তৈরি করার চেষ্টা চালাচ্ছে৷ এতে স্থানীয় বাসিন্দারাও আতংকিত হয়ে পড়েছে। এ অবস্থায় যে কোন সময় আরও বড় ধরণের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হতে পারে বলে তারা আশংকা করে তারা দ্রুত প্রশাসনের উদ্যোগ কামনা করেন। 

Post a Comment

Previous Post Next Post