মাতারবাড়িতে মাস্টার রুহুল আমিনের আচমকা গণসংযোগ, জনতার ঢল


বার্তা পরিবেশক।।
আগামী মার্চেই ইউপি নির্বাচন হওয়ার সম্ভবনা রেখে মহেশখালীর বিভিন্ন ইউনিয়নে নির্বাচনী আমেজ সৃষ্টি হলে তার মধ্য অন্যতম মাতারবাড়ি। মাতারবাড়ির ইউপি নির্বাচন কে কেন্দ্র করে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে কক্সবাজার জেলা পরিষদের সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মাস্টার রুহুল আমিন জনগনের দোয়া ও সমর্থন আদায়ের লক্ষ্যে ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় সর্বস্তরের মানুষের সাথে কৌশল বিনিময় করার জন্য  আচমকা বের হলে তা জেন  গণসংযোগটি যেন জনতার ঢলে পরিণত হয়েছে। ২৪ ডিসেম্বর (বৃহস্পতিবার) মাতারবাড়ির বাংলা বাজার থেকে তার গণসংযোগ শুরু হয় । এদিকে মাস্টার রুহুল আমিন এলাকায় গণসংযোগ করতে বের হয়েছেন এমন সংবাদ এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে মুহুর্তের মধ্যে কয়েক হাজার কর্মী সমর্থক বাংলা বাজারে জড়ো হয়। হাজার হাজার জড়ো হওয়া জনতা  স্লোগানে স্লোগানে মাস্টার রুহুল আমিনের বিকল্প নেই বলে মিছিল করেন। তারা এবার কোন ভোট ডাকাত, দূর্নীতিবাজ, প্রকল্পে সিন্ডিকেট করে স্থানীয়দের সাথে প্রতারককে আমরা চাই না । তাই এবার কোন ষড়যন্ত্র করে মাস্টার রুহুল আমিনকে ঠেকানো যাবে না।  জনগণের ভালবাসায় এবার চেয়ারম্যান হিসাবে মাস্টার রুহুল আমিনকে চাই।

তিনি সবাইকে নিয়ে বাংলা বাজার থেকে কৌশল বিনিময় ও গণসংযোগ করে  সাইরার ডেইলের উদ্দেশ্য  হংস মিয়াজির পাড়া , উত্তর সরদার পাড়া , দক্ষিণ সরদার পাড়া , উত্তর সাইরার ডেইল , দক্ষিণ সাইরার ডেইল,  মগডেইল ও  বৃহত্তম মাইজ পাড়া হয়ে তৈয়বীয়া মাদ্রাসায়  এসে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনায় গণসংযোগ শেষ করেন। 

কক্সবাজার জেলা পরিষদের সদস্য ও মহেশখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য  মাস্টার রুহুল আমিন গণসংযোগকালে বলেন, আমি মাতারবাড়ী বাসীর খেদমত করতে আমার জীবন উৎসর্গ করতে প্রস্তুত আছি। আমার টাকা পয়সা ধনদৌলত কোন কিছুর প্রয়োজন নেই আমার শেষ স্বপ্ন মাতারবাড়ির অসহয়ায় মানুষের পাশে থাকা। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সাথে অসহয়া, ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমিক ও জমির মালিকের পক্ষে কথা বলেছি। আগামীতে মাতারবাড়ীর কোন অসহায় শ্রমিক নিয়ে সিন্ডিকেট করে কেউ পার পাবে না। আমি সবসময় অসহায় মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। তাই আগামী ইউপি নির্বাচনে নৌকার মনোনয়নের জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

Post a Comment

Previous Post Next Post