আমরা মহেশখালীর কথা বলি..

কালারমার ছড়ায় আদালতের আদেশ না মেনে জমি, দোকান দখল ও হামলার চেষ্টা, হত্যার হুমকির অভিযোগ - মহেশখালীর সব খবর

কালারমার ছড়ায় আদালতের আদেশ না মেনে জমি, দোকান দখল ও হামলার চেষ্টা, হত্যার হুমকির অভিযোগ


বার্তা পরিবেশক।।
কালারমার ছড়ার ঝাপুয়ায় আদালতের আদেশ অমান্য করে জমি ও দোকানঘর জবরদখল নিতে ভূমিদস্যুচক্র কর্তৃক দলবল নিয়ে হামলার চেষ্টাসহ হত্যার হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, কক্সবাজার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এম.আর.মামলা নং ২১০৯/,২০২১ইং  ও এম.আর. মামলা নং ১৮৪৮/২০২১ইং  ফৌঃ কাঃ বিঃ ১৪৪ ধারায়  মৃত মৌং আবু তৈয়বের পূত্র মোঃ রিদুয়ান হক পুতুল ও মোঃ নোমানের বিরুদ্ধে গত ২২ সেপ্টেম্বর ও ৩ নভেম্বর পৃথক দুইটি মামলা করেন নুর মোহাম্মদ চৌধুরী গং ও হাজী মোক্তার আহমদ । বিজ্ঞ আদালত উভয় পক্ষের কৌশলীর বক্তব্য শুনে ১ম পক্ষের দখলে থাকা নালিশ জমি ২য় পক্ষ জোরপূর্বক দখল করতে চেষ্টা চালাচ্ছে।  এতে শান্তি শৃংঙ্খলার রক্ষার্থে যাবতীয় কাগজ পত্র পর্যালোচনা করে শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষায় ২য় পক্ষেকে আদালতের ধার্য তারিখ পর্যন্ত প্রবেশ বারিত করা হয়। কিন্তু আদালতে আদেশ অমান্য করে মোঃ রিদুয়ানের নেতৃত্ব  একদল সন্ত্রাসী নিয়ে হঠাৎ  জমি জবরদখল করে হামলার চেষ্টা করে হত্যার হুমকি দেন বলে জানান ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক  আজমল হোসাইন কায়ুম। তিনি আরও জানান, তারা আদালতে আদেশ না মেনে আমাদের দোকানে এসে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে হামলার চেষ্টা চালায়। এক পর্যায়ে জবরদখল নিতে আসলে বাঁধা প্রদান করলে লাশ পেলে দিবেন বলে হত্যার হুমকি দেন।  আমি ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।  

এবিষয়ে অভিযুক্ত মোঃ রিদুয়ান জানান,আমি আইনকে সম্মান করি, তারা আদাালতে মামলা করলে ১৪৪ ধারা আজ শেষ হয়ে গেছে,তাই কাজ করার জন্য প্রস্তুতি নিয়েছি,সেটা বলতে গিয়ে তাদের সাথে কথা বলি, তবে আদালতে আদেশ পেলেই আমি আদালতে আদেশ মানতে বাধ্য থাজব।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মোস্তাক আহমেদ বলেন, উক্ত জায়গা নিয়ে আদালতের একটি আদেশ রয়েছে। তা তাদের জানানো হচ্ছে।

মহেশখালী থানার ওসি আব্দুল হাই জানান, ঝাপুয়ায় একটি  জমি বিরোধ নিয়ে আদালতের  একটি আদেশ ছিল, আমি খোঁজখবর নিচ্ছি। তবে কেউ আইন শৃঙ্খলার অবনতি ঘটানোর চেষ্টা করলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

No comments

Powered by Blogger.