মহেশখালীর পাহাড়ে ফের পুলিশের অভিযান ৩দিনের ব্যবধানে আবারো ২০ হাজার লিটার দৈশীয় তৈরী চোলাই মদ উদ্ধার।  এ সময় গভীর পাহাড়ের ভিতরে অভিযন কালে পুলিশ বিশাল বাংলা মদের কারখানা ধ্বংশ করে। বিপুল পরিমানের সরঞ্জাম সহ ২ জনকে আটক করে।

গত ৯ ফেব্ররুয়ারী রাত্রে অভিযান চালিয়ে পৌর সদরের বলরাম পাড়া থেকে ১০ হাজার লিটার বাংলা মদ উদ্ধা ১২ফেব্ররুয়ারী রবিবার বিকাল সাড়ে ৫.টায় উপজেলার ছোট মহেশখালী মুক্তিযোদ্ধা বাচাঁ মিয়া সড়কের কাছিম আলী কাটা গ্রামের গভীর পাহাড়ে অভিযান পরিচালনা করে মহেশখালী  থানার  নবাগত ওসি প্রদীপ কুমার দাশ( পিপিএম বার ) এসআই শাহেদ ,এসময় বাংলা মদ এর কারখান উচ্ছেদ কালে উপস্থিত চিলেন স্থানীয় ছোট মহেশখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জিহাদ বিন আলী ও ইউপি সদস্য আব্দুল মান্নান। 

অভিযানের সময় ২৭টি  বাংলা মদ ভর্তি ড্রাম, মদের টুলার ফইনের ছিদ্র করা, ডেকসী,কন্টিনাম গুড় সহ বিভিন্ন উপকরণ জব্দ করে। এলাকাবাসী বিপুল ভাবে সমবেত হয়ে পাহাড় থেকে ড্রসি গুলি মহেশখালী থানায় নিয়ে আসে। স্থানীয়রা জানান, কাছিমআলী কাটা গ্রামের আলমের পুত্র সরওয়ার, আকতার কামাল গং এর মালিকানাধীন বাংলা মদের ব্যবসা করে আসছিল। 

পুলিশ অভিযান কালে স্থানীয় নুর মোহাম্মদের পুত্র শাকের উল্লাহ ও আনচার নামে ২ জনকে গ্রেপ্তার করে। মহেশখালী থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানানম মদের কারখানার মালিক ও ধৃতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা রুজু করা হবে। 

সম্পাদিত নয়, দ্রুত আপডেট ফাইল দেখাযাবে।



Share To:

Sobkhabor24x7

Post A Comment: