কক্সবাজারের মহেশখালীর আদুরে সোনাদিয়ার জিরো পয়েন্ট এলাকায় ফ্রান্সের এক নাগরিক মৃত্যুবরণ করেছে। তার নাম পপা ভারী। তিনি এলএনজি টার্মিনাল নির্মাণের উন্নয়ন প্রকল্পে সরঞ্জাম অপারেটর হিসেবে কাজ করতেন। বুধবার সকালে কর্মস্থলে তার মরদেহ পাওয়া যায়। মহেশখালী থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ জানান -স্ট্রোকজনিত কারণে তার মৃত্যু হয়েছে। বেলা সাড়ে ১২ টায় এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পুলিশ সোনাদিয়ায় গিয়ে তার মরদেহ উদ্ধারের তৎপরতা চালাচ্ছেন। মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার জেলা হাসপাতালে পাঠানো হবে বলে জানান ওসি। স্থানীয় কুতুবজোম ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেনে খোকন জানান -ঠিক কি কারণে তার মৃত্যু হয়েছে এখনও নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না। ফ্রান্সের এই লোকটি শরিরীক ভাবে বিশালদেহি ছিলেন। স্ট্রোকজনিত কারণে অথবা উন্নয়ন কাজে ব্যবহৃত ক্রেনের সাথে ধাক্কা লেগে তার মৃত্যু হতে পারে বলে প্রাথমিক ভাবে শোনা যাচ্ছে। মৃত্যুবরণ করা ফ্রান্সের নাগরিক পপা ভারী ফ্রান্সের উন্নয়ন সংস্থা জিওসন সাস এর হয়ে সোনাদিয়ায় এলএন প্রকল্পের উন্নয়ন কাজের সাথে যুক্ত ছিলেন। একটি দায়িত্বশীল গোয়েন্দা সূত্র জানিয়েছে -সোনাদিয়ার জিরো পয়েন্টে উন্নয়ন এলাকায় কাজ করতেন বিদেশী এই যন্ত্রবিৎ। মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আবুল কালাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মাহবুব রোকন
শেয়ার:

মন্তব্য দিন: