-->
মহেশখালী উপজেলা প্রশাসনের 'মানবতার ঘর' শুভ উদ্বোধন

মহেশখালী উপজেলা প্রশাসনের 'মানবতার ঘর' শুভ উদ্বোধন


আ ন ম হাসান:

আপনার প্রয়োজনীয় জিনিস টি নিয়ে যান, অপ্রয়োজনীয় জিনিস টি রেখে যান। এই শ্লোগানকে ধারণ করে মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাহ্ফুজুর রহমানের উদ্যোগে হাতে নেওয়া হয়েছে " মানবতার ঘর " নামে একটি মানবিক পদক্ষেপ ৷

উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন " মানবতার ঘরে " লিখা রয়েছে ' আপনার প্রয়োজনীয় জিনিসটি নিয়ে যান, অপ্রয়োজনীয় জিনিসটি রেখে যান।

মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাহফুজুর রহমান জানান, সমাজের অসহায় হতদরিদ্র ছিন্নমূল পরিবারের মানুষদের অনেক সময় অনেক কিছু জিনিসের প্রয়োজন পড়ে, কিন্তু তাঁরা অভাবের তাড়নায় তাদের সেই প্রয়োজনীয় জিনিসটি ক্রয় করতে পারে না।

অথবা চলতি পথে অনেকেরই প্রয়োজনীয় জিনিসটি সাথে নিতে ভুলে যান ৷

পক্ষান্তরে- সমাজের বিত্তবানেরা অনেক জিনিসপত্র ২/১ বার ব্যবহার করে বাড়িতে ফেলে রাখেন।

সাম্প্রতিককালে এমন কিছু বিষয় লক্ষ্য করে 'মানবতার ঘর' নামে উদ্যোগটি গ্রহণ করা হয়েছে ৷

১০ ই (এপ্রিল) শনিবার বিকাল ৫টায় শুভ উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে যাত্রা শুরু করে 'মানবতার ঘর'।

উক্ত 'মানবতার ঘরে' প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য তেল, চিনি, পেঁয়াজ, ডাল, ছোলা,কেক, টি-শার্ট, গেঞ্জি, লুঙ্গি, জুতা, স্যান্ডেল, ঔষধ, শিক্ষা সামগ্রী- কলম, পেন্সিল, খাতা, স্কেল এবং টুপি, মেসওয়াক, তাসবীহ ও মাস্ক সহ বিভিন্ন প্রয়োজনীয় উপকরণ প্রদান করে প্রথমবারে মতো স্পন্সর করেন মহেশখালী পৌরসভার বিশিষ্ট সমাজসেবক, ব্যবসায়ী মান্নান ভিডিওর স্বত্বাধিকারী আব্দুল মান্নান ও মহেশখালী পৌরসভার আরেক কৃতি সন্তান অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী ফায়সাল আমিন।

উপজেলা প্রশাসনের 'মানবতার ঘর'  শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত থেকে শুভ উদ্বোধন করেন- মহেশখালী উপজেলা পরিষদ কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সম্মানিত খতিব মাওলানা কাজী মূর্তাজ আহমেদ। এসময় স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে উপস্থিত থেকে সার্বিক সহযোগিতা করেন মহেশখালী উপজেলা প্রেসক্লাবের সদস্য সচিব আ ন ম হাসান, সংবাদকর্মী গাজী আবু তাহের, ফারুক ইকবাল, এস এম রুবেল, অসীম দাশ গুপ্ত, এম.ডি শাহ জাহান, ইশরাত মুহাম্মদ শাহ জাহান সহ অন্যান্যরা।

উপস্থিত নেতৃবৃন্দরা উপজেলা প্রশাসনের এ প্রশংসনীয় উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, সমাজের অসহায় হতদরিদ্র ছিন্নমূল মানুষেরা তাদের প্রয়োজনীয় উপকরণ এখান থেকে নিয়ে তাদের চাহিদা মেটাতে পারবেন- এজন্য উপজেলা প্রশাসনের এটি একটি প্রাথমিক উদ্যোগ। বক্তারা সমাজের বিত্তবানদের প্রতি মানবতার এ শুভ কাজে নিজেদের সাধ্যমতো প্রয়োজনীয় উপকরণ প্রদান করার আহবান জানিয়ে আরও বলেন, অনেক সময় দেখা যায়- আপনারা অপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নষ্ট করে ফেলেন বা ফেলে দেন। আপনার সেই ফেলে দেওয়া বা নষ্ট করা জিনিসটি অন্যের প্রয়োজন হতে পারেন। তাই আপনারা যাতে আপনাদের অপ্রয়োজনীয় জিনিসটি এখানে রেখে যেতে পারেন- তার জন্য মহেশখালী উপজেলা প্রশাসনের এটি একটি প্রচেষ্টা মাত্র।

উপস্হিত বক্তরা আরও বলেন, যাদের যে জিনিসটি প্রয়োজনীয় তারা সে জিনিসটি নিয়ে যেতে পারবেন।

 প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত এ 'মানবতার ঘর' খোলা থাকবে।

এদিকে উদ্বোধনের পরপরই সমাজের অনেক অসহায় হতদরিদ্র ছিন্নমূল মানুষেরা তাদের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নিয়ে যেতে দেখা যায়।

মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাহ্ফুজুর রহমানের এমন প্রশংসনীয় উদ্যোগকে স্বাগত জানান মহেশখালীর সর্বস্তরের জনসাধারণ।

শিরোনাম ছিলো.. "মহেশখালী উপজেলা প্রশাসনের 'মানবতার ঘর' শুভ উদ্বোধন"

Post a Comment

Iklan Atas Artikel

Iklan Tengah Artikel 1

Iklan Tengah Artikel 2

Iklan Bawah Artikel