গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
বাংলাদেশ পুলিশ
কোম্পানী অধিনায়কের কার্যালয়
সিপিসি-২, র‌্যাব-৭
কক্সবাজার ক্যাম্প
স্মারক নং-৭৩১৬/অপস্/(প্রেস)/সিপিসি/র‌্যাব-৭/                                                   তারিখঃ

প্রতি,
    সম্পাদক/ব্যুরো চীফ/ষ্টাফ রিপোর্টার/রিপোর্টার/প্রতিনিধি   
          সকল পত্রিকা/টিভি চ্যানেল/মিডিয়া
প্রেস বিজ্ঞপ্তি

কক্সবাজার জেলার সদর থানাধীন খুরুশকুল এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে পাইপ বোমা (ওঊউ) তৈরীর ৭৮ টি লোহার কেচিং সহ ০২ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭

১।    র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সবসময়ই জঙ্গী, অবৈধ অস্ত্র ব্যবসায়ী, অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী, মাদক ব্যবসায়ী ও নাশকতা সৃষ্টিকারীদের গ্রেফতার পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের ক্ষেত্রে অত্যন্ত অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম ২০১৭ ইং সালের প্রথম মাসেই মহেষখালীর গহীন পাহাড়ী জঙ্গলে অস্ত্র কারখানায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান অস্ত্র, গুলি এবং অস্ত্র তৈরীর সরঞ্জাম সহ ০২ জন অস্ত্র তৈরীর কারিগর, চাঞ্চল্যকর টেকনাফ আনসার ক্যাম্প ডাকাতি, হত্যা ও অস্ত্র-গোলাবারুদ লুটের সাথে সরাসরি জড়িত ০৩ জন রোহিঙ্গা গ্রেফতার এবং কিছু সংখ্যক অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার, রামু রাবার বাগান এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে অস্ত্র-গুলি ও মাদকদ্রব্যসহ ০৩ জন ডাকাত এবং বিপুল পরিমান ইয়াবা ও ইয়াবা ব্যবসায়ীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে জনমনে স্বস্তি ফিরিয়ে এনেছে।

২।    র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে, কিছু সংখ্যক দুস্কৃতিকারী কক্সবাজার জেলার সদর থানাধীন খুরুশকুল এলাকা দিয়ে একটি ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সা (টমটম লাইসেন্স নং-১১৪৮) যোগে নাশকতা সৃষ্টি করার লক্ষ্যে বোমা তৈরীর সরঞ্জাম বহন করে নিয়ে যাচ্ছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে অদ্য ১৭ জানুয়ারি ২০১৭ ইং তারিখ ১২.৩০ ঘটিকার সময় লেঃ কমান্ডার আশেকুর রহমান, (এক্স) বিএন এর নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি চৌকষ অভিযানিক দল বর্ণিত স্থানে অভিযান পরিচালনা করে। উক্ত অভিযানে ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সা (টমটম লাইসেন্স নং-১১৪৮) যোগে বোমা তৈরীর সরঞ্জাম বহন করে নিয়ে যাওয়ার সময় আসামী ১। মোঃ করিম উল্লাহ (৪০), পিতাঃ মৃত নুরল ইসলাম, গ্রাম-পশ্চিম মহুরী পাড়া, সরকারী কলেজের পিছনে এবং ২। মোঃ রমিজ (৪২), পিতাঃ মৃত জাফর হোসেন, গ্রামঃ- উত্তর রোমালিয়ার ছাড়া, হাসেমিয়া মাদ্রাসার পার্শ্বে, উভয় থানাঃ কক্সবাজার সদর, জেলাঃ কক্সবাজারদের গ্রেফতার করা হয়। পরবর্তীতে আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে তাদের তথ্য মতে অটোরিক্সাটি তল্লাসী করে পাইপ বোমা (ওঊউ) তৈরি করার জন্য ৭৮ টি লোহার কেচিং এবং বিস্ফোরক দ্রব্যের নাম সম্বলিত ০১ টি তালিকা উদ্ধার করা হয়। তালিকাটি দেখে এবং গ্রেফতারকৃত আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, তালিকায় উল্লেখিত বিস্ফোরক দ্রব্যেগুলি দিয়ে তাদের নাশকতা করার পরিকলল্পনা ছিলো। আসামীদের অধিকতার জিজ্ঞসাবাদ এবং তদন্ত চলছে।

৩।    আটককৃত আসামীদের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।



আশেকুর রহমান
লেঃ কমান্ডার,(এক্স),বিএন
কোম্পানী অধিনায়ক
সিপিসি-২,র‌্যাব-৭,কক্সবাজার।
শেয়ার:

মন্তব্য দিন: