এই প্রবীণ নেতা মহেশখালীর উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে –এমপি আশেক

সৈয়দুল কাদের / এম. বশির উল্লাহ 

আশেক উল্লাহ রফিক এমপি বলেছেন -আজকের এই বিজয় মহেশখালীর উন্নয়ন আরও ত্বরান্বিত করবে। তিনি ভোটার ও নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকারী কর্মকর্তা, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন -আপনারা সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে একটি নির্বাচন উপহার দিয়েছেন। তিনি আওয়ামী লীগের প্রার্থি আনোয়ার পাশা চৌধুরীর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে অন্যসব প্রার্থি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানো জন্য সংশ্লিষ্ট সকল প্রার্থির প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। গতকাল কক্সবাজার জেলা পরিষদের মহেশখালীস্থ ৩ নম্বর ওয়ার্ডের স্থাগীত কেন্দ্রের নির্বাচন পরবর্তি এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে এ কথা বলেন। নির্বাচনে মহেশখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আনোয়ার পাশা চৌধুরী বিজয়ী হন। 

কক্সবাজার জেলা পরিষদের নির্বাচনে মহেশখালীস্থ ৩ ওয়ার্ডের সাধারণ সদস্য পদের ভোটগ্রহণ সঙ্গত কারণে স্থগীত ছিল। সম্প্রতি নির্বাচন কমিশনের এক প্রজ্ঞাপনে গতকাল ২২ অক্টোবর এখানে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করে। মহেশখালী পৌরসভা, বড় মহেশখালী, কুতুবজোম ও ছোট মহেশখালী ইউনিয়ন নিয়ে এই ওয়ার্ডটি গঠিত। এখানে মোট ভোটার রয়েছে ৫০ জন। গতকালের নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছে ৪৯ জন ভোটার। এখানে ৪৮ টি ভোট পেয়ে সাধারণ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন আলহাজ্ব আনোয়ার পাশা চৌধুরী। ১ ভোট পেয়েছেন অন্য এক প্রার্থি। প্রথমদিকে মোট ৫ জন প্রার্থি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে আসলেও এখানে প্রার্থি আলহাজ্ব অনোয়ার পাশা চৌধুরীর প্রতি সম্মান জানিয়ে অন্যসব প্রার্থিরা আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়ে নির্বাচন থেকে আগে সরে দাঁড়ান। 

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন -জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এম. আজিজুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা ও পৌর মেয়র আলহাজ্ব মকছুদ মিয়া, জেলা পরিষদ সদস্য মাস্টার রুহুল আমিন, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা এড. আবু তালেব, নির্মল চক্রবৃর্তী, কুতুবজোমের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন খোকন, হোয়ানকের চেয়ারম্যান মোস্তাফা কামাল, ছোট মহেশখালীর চেয়ারম্যান জিহাদ বিন আলী, ধলঘাটার চেয়ারম্যান কামরুল হাসান, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা নুরুল আলম, মাস্টার আকতার কামাল, মেজর আক্তার কামাল, আব্দুস সালাম বাঙ্গালী, বড় মহেশখালী আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি এম. ফোরকান বিএ, প্রফেসর আহমদ কবির, মুক্তিযোদ্ধা ছালেহ আহমদ, হোয়ানক আওয়ামী লীগের সভাপতি মাস্টার মীর কাসেম, ধলঘাটা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাঈদ আলম, বড় মহেশখালী আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ নুরুল আমিন, ছোট মহেশখালী আওয়ামী লীগের সা: সম্পাদক মাস্টার এনামুল করিম, মাতারবাড়ি আওয়ামী লীগ নেতা মাহবুব মোর্শেদ, বড় মহেশখালীর আজিজুল হক, মুফিজুর রহমান মেম্বার, হোছন আহমদ, উপজেলা যুবলীগ আহ্বায়ক আলহাজ্ব সাজেদুল করিম, যুগ্ম-আহ্বায়ক এড. শেখ কামাল, যুবলীগ নেতা মোজাম্মেল হক বাহাদুর, জমির উদ্দিন, উপজেলা শ্রমীক লীগের সা: সম্পাদক সরওয়ার আলম, বড় মহেশখালী যুবলীগ আহ্বায়ক জিল্লুর রহমান মিন্টু, ছোট মহেশখালী যুবলীগ আহ্বায়ক শাহেদ বক্স, কুতুবজোম যুবলীগ আহ্বায়ক গোলাম কিবরিয়া, জেলা ছাত্রলীগ নেতা সরওয়ার কায়ছার ছিদ্দীকি সোহেল, ছাত্রলীগ নেতা মকছুদুল করিম, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক নুরুদ্দিন মাসুদ, শফিউল আলম, ছাত্রলীগ নেতা শাহনেওয়াজ, শ্রমীক লীগ নেতা নজরুল ইসলাম, বড় মহেশখালী যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক মোঃ শাহজাহান, নজরুল ইসলাম, সাহেল মোহাম্মদ আশেক, কষ্ট বেলালসহ অনেকেই। 

সমাবেশে বিজয়ী আলহাজ্ব আনোয়ার পাশা চৌধুরী সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি তার এই বিজয় দলের সর্বস্থরের নেতাকর্মী ও তাকে সম্মান দেখানো সকলের প্রতি উৎসার্গ করে সকলের আন্তরিক দোয়া কামনা করেন। 

এদিকে সুষ্ঠু পরিবেশে সুন্দর এই নির্বাচনে সার্বিক আইনশৃঙ্খলার বিষয়টি উপস্থিত থেকে তদারকি করেন মহেশখালী থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ।  

আশেক উল্লাহ রফিক এমপির অভিনন্দনঃ 

মহেশখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বর্ষীয়ান আওয়ামী লীগ আলহাজ্ব আনোয়ার পাশা চৌধুরীকে অভিনন্দন ও ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিক এমপি। একই সাথে তিনি প্রবীণ এই নেতার প্রতি সম্মান জানিয়ে অন্যান্য প্রার্থিগণ নির্বাচন থেকে নিজেদের প্রত্যহার করে নেওয়ায় তিনি তাঁদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ও অশেষ ধন্যবাদ জানান। 


  
শেয়ার:

মন্তব্য দিন: