ছবিঃ নিহত অন্তরা ও বিসিসি কর্মকর্তা আবু রায়হান।

বিশেষ প্রতিবেদক।। 
কক্সবাজারের মহেশখালীতে কর্মরত বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) এর এক কর্মকর্তা নববিবাহিত স্ত্রী আত্মহত্যা করেছে। শনিবার দুপুরে মহেশখালীর কর্মস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

মহেশখালী হাসপাতাল সূত্র জানায় -শনিবার বেলা ১১ টা ৫০ মিনিটে নিহতের স্বামী আবু রায়হান তার স্ত্রী অন্তরা খাতুনের মরদেহ নিয়ে হাসপাতালে আসেন। কর্তব্যরত ডাক্তার তার দেহ পরীক্ষা করে মৃত ঘোষণা করেন। সূত্র জানান -আবু রায়হান কুষ্টিয়া জেলার কাজীর হাট -ভেড়ামারা এলাকার বাসিন্দা। তিনি শে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির প্রসার ও উন্নয়নকল্পে প্রতিষ্ঠিত সরকারের একমাত্র সংস্থা বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) এর একজন টেকনিক্যাল কর্মকর্তা। গত ৩ মাস আগে একই এলাকার আজিজুল হক এর মেয়ে অন্তরা খাতুন(২১) এর সাথে বিয়ে হয়।

গত দুই সপ্তাহ আগে তাকে ডিজিটাল আইল্যান্ড মহেশখালীর সাপোর্ট কর্মকর্তা হিসেবে মহেশখালীতে পদায়ন করা হয়। তিনি তার স্ত্রীকে নিয়ে মহেশখালী পৌরসভার গোরকঘাটা বাজারের পাশে আব্দুল হাকিমের ভাড়া বাসায় ওঠেন।

নিহতের স্বামী মহেশখালীর সব খবরকে জানান -শনিবার দুপুরে আবু রায়হান পাশের বাজারে যান। বাজার থেকে ফেরার পর বসার দরোজা ভেতর থেকে বন্ধ পেয়ে দরোজা ভেঙ্গে ভেতরে ঢুকেন তিনি। এ সময় বাসার সিলিং এর সাথে স্ত্রীর ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তিনি জানান -গ্রামের বাড়িতে কোরবানি করার বিষয় নিয়ে রাতে ও সকালে স্ত্রীর সাথে তার ঝগড়া হয়। এ নিয়ে অভিমান করে তিনি আত্মহত্যা করতে পারেন বলে জানান স্বামী আবু রায়হান।

ডিজিটাল আইল্যান্ড মহেশখালীর প্রকল্প সহকারী (আইওএম) আব্দুল্লাহিল কাফি মহেশখালীর সব খবরকে জানান - আবু রায়হান বিসিসির সহকারী প্রকৌশলী হিসেবে সরকারী নিয়োগে মহেশখালী এসেছেন। ডিজিটাল আইল্যান্ডের ক্যাবল সিস্টেম ও টেকনিক্যাল দিকটি তিনি দেখাশোনা করেন।

মহেশখালীর থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) যুগান্তরের কাছে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মহেশখালীর সব খবরকে বলেন -হাসপাতালের আনুষ্ঠানিকতা শেষে মরদেহটি পুলিশ হেফাজতে আনা হবে। ময়না তদন্ত শেষে পুলিশ পরবর্তী আইনি উদ্যোগ গ্রহণ করবেন।



শেয়ার:

মন্তব্য দিন:

0 comments so far,add yours