আমরা মহেশখালীর কথা বলি..

আফরোজার’র লাশ দেখিয়ে দেন তাঁরই সৎ সন্তান - মহেশখালীর সব খবর

⬤ আমাদের নতুন ওয়েবসাইটে স্বাগতম। ⬤ আমাদের ওয়েবসাইট www.moheshkhalirsobkhabor.com ⬤ ফেসবুক ফেইজ www.facebook.com/m.sobkhabor ⬤ ইউটিউব চ্যানেল www.YouTube.com/Sobkhabor24x7 ⬤ ফেসবুক গ্রুপ www.facebook.com/groups/m.sobkhabor ⬤

আফরোজার’র লাশ দেখিয়ে দেন তাঁরই সৎ সন্তান


রুদ্র সাইফুল্লাহ।।

উত্তর নলবিলা এলাকায় আফরোজা বেগম নামে এক গৃহবধূ  ছয়দিন ধরে নিখোঁজ থাকার পর খোঁদ নিজ স্বামীর বাড়ির উঠান থেকেই মিলেছে তার লাশ। গতকাল রাতে স্বামী রাকিব হাসান বাপ্পীর বাড়ির আঙিনা থেকে মাটি খুড়েঁ লাশ উদ্ধার করে মহেশখালী থানা পুলিশ। লাশ উদ্ধারের সময় ঘটনাস্থলে থাকা আমাদের প্রতিবেদকরা জানিয়েছেন, নিখোঁজের পর থেকেই পালিয়ে বেড়ানো স্বামী রাকিব হাসান বাপ্পিরই আগের স্ত্রীর ৫ বছরের কন্যা সন্তানই তার সৎমায়ের লাশের সন্ধান দিয়েছে।

নিহতের পারিবার জানায়, এক বছর আগে কালামারছড়া ইউনিয়নের উত্তর নলবিলা গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা হাসান বশিরের ছেলে বদরখালী কলেজে র খন্ডকালীন প্রভাষক রাকিব হাসান বাপ্পির সঙ্গে হোয়ানক ইউনিয়নের পূইছড়া গ্রামের মো. ইসহাকের মেয়ে আফরোজার বেগমের বিয়ে হয়।পরে তাদের মধ্যে কলহ শুরু হলে আফরোজা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলাও করেন। ওই সময় আফরোজা বাবার বাড়িতে ছিলেন। তবে সম্প্রতি মামলা আপোষ মিমাংসা হলে বাপ্পি স্ত্রী আফরোজাকে তার বাড়িতে নিয়ে যান। এক পর্যায়ে গত ১২ অক্টোবর পুত্রবধূ আফরোজা বেগম নিখোঁজ হয়েছে বলে শাশুড়ি রোকেয়া হাসান আফরোজার বাবার বাড়িতে খবর দেন। সেই থেকে আফরোজা কোন খোজ পাওয়া যাচ্ছিলো না।

লাশ উদ্ধারের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি কালারমারছড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তারেক বিন ওসমান শরিফ বলেন,“ যে আফরোজা নিখোঁজ ছিলো অনেকদিন। তার হাজব্যান্ডও লাপাত্তা। আজকে স্বামী বাপ্পীর বাড়ির আঙ্গিনা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এবং এটা পোস্ট মর্টেমের জন্য সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হচ্ছে। আমি একজন জনপ্রতিনধি হিসেবে এই ধরনের ন্যাক্কারজনক ঘটনার অবশ্যই বিচার চাই। দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই “

এদিকে মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মো আব্দুল হাই মহেশখালীর সব খবর;কে বলেন,“ পুলিশ- কোন এক মাধ্যমে আমরা খবর পেয়ে রাত সাড়ে ১১টার দিকে আফরোজা বেগমের লাশ উদ্ধার করি আমরা। লাশ উদ্ধার করেই ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। এটা মূলত তাদের স্বামী-স্ত্রীর ঘটনা। হাজব্যান্ডই তাকে হত্যা করেছে বলে আমাদের ধারণা।”

No comments

Powered by Blogger.