-->
মাতারবাড়িতে কিশোর ক্রিকেটারের উপর হামলা, উল্টো মিথ্যা মামলা, হুমকি

মাতারবাড়িতে কিশোর ক্রিকেটারের উপর হামলা, উল্টো মিথ্যা মামলা, হুমকি

 চেষ্টা চলছে আহত কিশোরের নানাবাড়ি দখলের
বার্তা পরিবেশক।। মহেশখালীর মাতারবাড়িতে তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে স্থানীয় এক কিশোর ক্রিকেট খেলোয়াড়ের উপর হামলা করে গুরুতর আহত করার পর ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে হামলাকারীরা নিরীহ লোকজনের বিরুদ্ধে উল্টো মিথ্যা মামলা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়াগেছে। একটি মামলায় আদালত থেকে জামিন নিয়ে এসে হামলাকারীরা নিরীহ লোকজনকে ধারাবাহিক ভাবে হুমকি দিয়ে যাচ্ছে এবং প্রতিপক্ষের বাড়ি দখলের চেষ্টা চালাচ্ছে বলে অভিযোগে প্রকাশ।

সূত্রের লিখিত অভিযোগ থেকে জানা যায়, সম্প্রতি উপজেলার মাতারবাড়ি নতুন বাজার দিঘীপাড়া এলাকার আব্দুস শুক্কুর এর পুত্র কিশোর ক্রিকেট তারকা জমির উদ্দিন (১৭) এর উপর তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে স্থানীয় দুর্বৃত্তরা হামলা করে। কিশোর জমির মাতারবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্র। এ সময় তারা ওই কিশোরকে অপহরণের চেষ্টা চালায়, অপহরণ করতে ব্যর্থ হয়ে তাকে ছুরিকাহত করে ও মারধর করে গুরুতর আহত করে। জানাগেছে আহত জমির উদ্দিন একজন কিশোর ক্রিকেট তারকা। সর্বশেষ চকরিয়ার একটি ক্রিকেট একাডেমির হয়ে খেলে তিনি স্বতন্ত্র ক্রীড়া নৈপুণ্য দিয়ে সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টিতে আসে। সম্প্রতি জমির উদ্দিন ময়মনসিংহ ক্রিকেট একাডেমির হয়ে ভারতের মাঠে খেলার জন্য মনোনীত হয়। মূলত: করোনা সংকটের জন্য তার ভারতে খেলতে যাওয়ার বিষয়টি বিলম্বিত হয়, এ ফাঁকে সে মাতারবাড়ির বাড়িতে অবস্থান করে ক্রীড়া চর্চা করে আসছিল। এদিকে এরই মধ্যে কিশোর জমির উদ্দিন এর নানা বাড়িতে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে তার নানা হাজী গোলাম কুদ্দুস ও স্থানীয় লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে নানাবাড়ির লোকজন আহত হলে এনিয়ে মামলা হয়। পরে মামলার আসামিরা এ মামলায় আদালত থেকে জামিন নিয়ে মাতারবাড়িতে যায়।


মাতারবাড়ি যাওয়ার পর তারা বেপরোয়া ভাবে হন্য হয়ে প্রতিপক্ষের লোকজনকে খুঁজতে থাকে, এক পর্যায়ে মঙ্গলবার রাতে মাতারবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয় এলাকায় হাজী গোলাম কুদ্দুস এর নাতি জমির উদ্দিন (১৭)কে পেয়ে তাকে উপর্যুপরি মারধর করতে থাকে। প্রতিপক্ষের ভূট্টু, আদিল কাদের, আজিজুল কাদের, গোলাম রহমান, খাইরু ও গোলাম কাদের এর নেতৃত্বে ১০ জনের একদল দুর্বৃত্ত কিশোর জমির উদ্দিনকে নির্মম ভাবে মারধর ও মাথায় ছুরিকাহত করে একটি গাড়িতে তুলে অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চালায়। এ সময় কিশোরের চিৎকার শোনে এলাকার লাকজন এগিয়ে আসলে দুর্বৃত্তরা জমির উদ্দিনকে গুরুতর আহত অবস্থায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় ভাবে ও পরে মহেশখালী হাসপাতালে নিয়ে এসে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। জমির উদ্দিন এর পারিবারিক সূত্রের দাবি হামলাকারীরা এলাকার চিহ্নিত ইয়াবা ব্যবসায়ী, তাদের অনেকেই ইতোমধ্যে ইয়াবা মামলায় গ্রেফতার হয়ে জেল হাজত থেকে এসেছে।

এদিকে এ ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে হামলাকারীদের একজন আদিল কাদের এর স্ত্রী হাবিবাকে মিথ্যা ভাবে আহত সাজিয়ে মহেশখালী থানায় তড়িঘড়ি করে একটি মামলা দায়ের করে। মামলায় নিরীহ লোকজনকে আসামি করা হয়। অদৃশ্য কারণে কোন প্রকার প্রাথমিক তদন্ত বা যাচাই ছাড়াই মামলাটি তাৎক্ষণিক ভাবে রেকর্ড করা হয়। এ মিথ্যা মামলা হওয়ার পর হামলাকারিরা এলাকায় ত্রাস শুরু করেছে। তারা নিরীহ লোকজনকে ধারাবাহিক ভাবে হুমকী দিয়ে আসছে। এতে বেশ নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে তারা। এ সুযোগে এ চক্রটি হাজী গোলাম কুদ্দুস এর বাড়িটি দখলের জন্য অপচেষ্টা শুরু করেছে। এ নিয়ে দ্রুত প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগিরা।


শিরোনাম ছিলো.. "মাতারবাড়িতে কিশোর ক্রিকেটারের উপর হামলা, উল্টো মিথ্যা মামলা, হুমকি"

Post a Comment

Iklan Atas Artikel

Iklan Tengah Artikel 1

Iklan Tengah Artikel 2

Iklan Bawah Artikel