মহেশখালীর বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পে ভূমি অধিগ্রহণে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে চেক বিতরণ করলেন এমপি আশেক


রকিয়ত উল্লাহ।।।

কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ী কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্পসহ বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পে  ভূমি অধিগ্রহণে  ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ক্ষতিপূরণের চেক প্রদান করেছেন মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনের সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক। গতকাল ১৫ ডিসেম্বর মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২ টার সময় মাতারবাড়ী মজিদিয়া মাদ্রাসার মাঠে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এসব চেক বিতরণ করেন তিনি। কোল পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি সূত্রে জানা গেছে, মাতারবাড়িতে কোল পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন ১২’শ মেগাওয়াট আল্ট্রা সুপার ক্রিটিক্যাল কোল ফায়ার্ড পাওয়ার প্রকল্প এবং বাংলাদেশ-সিঙ্গাপুর ৭’শ মেগাওয়াট প্রকল্পের ভূমি অধিগ্রহণের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত বিভিন্ন ক্যাটাগরির ১২৩ জনকে বিভিন্ন অংকের ক্ষতিপূরণের চেক ইস্যু হয়। আনুষ্ঠানিকভাবে ওইসব চেক বিতরণের জন্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক। তিনি ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে চেক হস্তান্তর করেন।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক বলেন, ‘দেশের উন্নয়নের জন্য মাতারবাড়ীতে তৈরি হচ্ছে দেশের সর্ববৃহৎ উন্নয়ন প্রকল্প। এই প্রকল্প বাস্তবায়নের জমি দেয়াসহ নানাভাবে মাতারবাড়ীর মানুষ সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। এতে তারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কিন্তু তাদের সেই ক্ষতি পুষিয়ে দেয়ার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশ দিয়েছেন। সেই নির্দেশ মোতাবেক জমির মালিক, শ্রমিকসহ বিভিন্নভাবে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরি করে ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই ক্ষতিপূরণের অর্থ বিতরণ করা হয়েছে এবং পর্যাক্রমে সবাই ক্ষতিপূরণের অর্থ পাবেন।’


এসময় স্থানীয়দের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়ে তিনি বলেন, ‘ক্ষতিপূরণের টাকা তুলতে গিয়ে কাগজপত্র জটিলতাসহ সব ধরণের জটিলটা সমাধানের জন্য সব দপ্তরকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। যেসব সমস্যা ঝুলে রয়েছে তাদের সমস্যাগুলো সমাধান করে দ্রুত তাদেরও টাকা পাওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। এছাড়াও মাতারবাড়ীতে বাস্তবায়নাধীন প্রকল্পে স্থানীয় যোগ্য লোকদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা শতভাগ বাস্তবায়ন হবে।’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আমিন আল পারভেছ, উপজেলা নিবার্হী অফিসার  মাহফুজুর রহমান, উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি সুইচিং মং মারমা, অন্যদের মাঝে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন মাতারবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাস্টার মোহাম্মদ উল্লাহ, মাতারবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জিএম ছমি উদ্দিন।

অন্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান এনামুল হক রুহুল, জেলা পরিষদের সদস্য মাস্টার রুহুল আমিন ও মোশারফা জন্নাত, উপজেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মাস্টার নূর বক্স এমএড, মাতারবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম হায়দার প্রমূখ।  এছাড়া বিপুল সংখ্যাক ক্ষতিগ্রস্ত জমির মালিক উপস্থিত ছিলেন।

Post a Comment

Previous Post Next Post