আমরা মহেশখালীর কথা বলি..

চালিয়াতলী পেট্রোল পাম্প সংলগ্ন এলাকায় জায়গার বিরোধে দু'পক্ষের হাতাহাতি, একজন আহত - মহেশখালীর সব খবর

চালিয়াতলী পেট্রোল পাম্প সংলগ্ন এলাকায় জায়গার বিরোধে দু'পক্ষের হাতাহাতি, একজন আহত

নিজস্ব প্রতিনিধি।। উত্তর নলবিলা চালিয়াতলী পেট্রোল পাম্প সংলগ্ন এলাকায় জায়গার বিরোধে দু'পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে, এই ঘটনায় কালাবদা নামের এক ব্যক্তি আহত হয়েছে বলে জানাযায়। বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি-২০২১) সকাল সাড়ে ১১ টায় এই ঘটনা ঘটে। আহত কালাবদা কে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে বলে জানান তাঁর স্ত্রী।

চালিয়াতলী পেট্রোল পাম্পের দক্ষিণ পাশে নিজের ক্রয়কৃত জমির উপর বাউন্ডারি নির্মাণ করছেন মাতারবাড়ি এলাকার ছমি উদ্দিন। ছমি উদ্দিনের বাউন্ডারি দেওয়া জমির মধ্যে পশ্চিম পাশের ৬০ খড়া অংশের মালিকানা দাবি করে কোর্টে মামলা করেন নুর হোছাইনের পুত্র ইব্রাহিম, আমির হোছাইনের পুত্র কালাবদা, ছোট্টোসহ ওই জায়গার অংশীদারগণ। কোর্টের অভিযোগের প্রেক্ষিতে বাউন্ডারি নির্মাণ কাজ বন্ধ করেন ছমি উদ্দিন।
পরে জায়গা ক্রয়ের কাগজপত্র যাচাই- বাছাইয়ের পরে নুর হোছাইনের পুত্র ইব্রাহিমের করা মামলাটি খারিজ করলে পুনরায় নির্মাণ কাজ শুরু করেন ছমি উদ্দিন। আজ সকালে ছমি উদ্দিনের বাউন্ডারি নির্মাণ কাজে বাঁধা দেয় ওই জায়গার অংশীদার দাবি করা কালাবদা ও তার স্ত্রী, ছোট্টোর স্ত্রী এবং নুর হোছাইনের স্ত্রী কন্যাসহ একদল মহিলা। বাঁধা দেওয়ার এক পর্যায়ে তারা নির্মাণ শ্রমিকের গায়ে হাত তুলেন বলে জানান ছমি উদ্দিন। পরে ঘটনাস্থলে মাতারবাড়ি ফাঁড়ির পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়। মাতারবাড়ি ফাঁড়ির এএসআই তোফায়েল জানান, ছমি উদ্দিনের বাউন্ডারি নির্মাণ কাজের উপর অভিযোগ করে একটি মামলা হয়েছিলো যার লিখিত নোটিশ আমরা ছমি উদ্দিনকে অবগত করেছিলাম পরে সেটা খারিজ হলে তিনি পুনরায় নির্মাণ কাজ শুরু করেন পূর্বের মামলা খারিজ হওয়ার পরে কোর্টে পুনরায় আরেকটি অভিযোগ দাখিল করেছে বলে জানানো হয়েছে বাদী ইব্রাহিমের পক্ষ থেকে তবে যার কোনো লিখিত পত্র আমরা হাতে পাইনি। তবে দু'পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছাই এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে ঘটনাস্থলে অবস্থান করছি।
ks//

No comments

Powered by Blogger.