-->
মহেশখালীতে আ.লীগ দুর্বল নয়- সিরাজুল মোস্তফা

মহেশখালীতে আ.লীগ দুর্বল নয়- সিরাজুল মোস্তফা


নিজস্ব প্রতিবেদক।।

“ভবিষ্যতে যেকোন অপশক্তি মহেশখালীতে ধ্বংসাত্মক তৎপরতা চালালে, তা সাথে সাথে প্রতিহত করা হবে। মহেশখালীতে আওয়ামী লীগ কোনদিন দুর্বল না, দুর্বল ছিলো না এবং দুর্বল থাকবে না। আমরা সামনে যেকোন অপশক্তির অপ-তৎপরতা কঠোরহস্তে প্রতিহত করবো”

গতকাল বুধবার মহেশখালী উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে বিশেষ আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক সভা শেষে সাংবাদিকদের দেওয়া ব্রিফিং-এ এসব কথা বলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা।

তিনি বলেন, “ বড় মহেশখালীর হামলা অত্যন্ত সু-পরিকল্পিত এবং সূদরুপ্রসারী একটা ষড়যন্ত্র। মিছিলটা হেফাজত বের করলেও সেখানে ভর করেছে বিএনপি-জামাত। গভীররাতে তারা সুকৌশলে আ.লীগ অফিসে অগ্নিসংযোগ করে এবং বিভিন্ন বাড়ি ঘরে হামলা চালায়।” 

আ.লীগের দুর্গখ্যাাত বড় মহেশখালীতে এমন ঘটনায় দলীয় কোন প্রতিরোধ দেখা গেল না কেন?- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “প্রতিরোধ করার জন্য আমরা চাইলে নির্দেশ দিতে পারতাম। যেহেতু ঘটনাটি গভীর রাতে হয়েছে, সেহেতু ঐসময় রাতের অন্ধকারে কেউ কাউকে চিনতো না। তখন প্রতিরোধের নামে যদি আমরা আমাদের কর্মীদের মাঠে নামাতাম তখন হয়তো আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম একটা অবনতি হতো। যেহেতু আমরা ক্ষমতাসীন দল, আমাদের দায়-দায়িত্ব আছে বিধায়, দেশকে ভালোবাসি বিধায় আমরা আমাদের কর্মীদের ধ্বংসাত্মক কাজে ঠেলে দিই নাই। ”

ভিডিও তে বিএনপি-জামাতের কর্মীদের দেখতে পেয়েছেন জানিয়ে তিনি বলেন, “যেহেতু ভিডিও ফুটেজ রয়েছে, অতএব তাদের কঠোর শাস্তির আওতায় আনা হবে। এবং ভবিষ্যতে আইনশৃঙ্খলা কমিটি আগে-ভাগে সচেতন থাকবে। 

এর আগে মহেশখালীর বড় মহেশখালীতে হেফাজতের তান্ডবে ক্ষতিগ্রস্থ আ.লীগ অফিস পরিদর্শনে যান জেলা প্রশাসকসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা ও আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দরা। পরে পরিদর্শন শেষে মহেশখালী উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে এক বিশেষ আইনশৃঙ্খলা সভায় যোগ দেন তারা।


শিরোনাম ছিলো.. "মহেশখালীতে আ.লীগ দুর্বল নয়- সিরাজুল মোস্তফা"

Post a Comment

Iklan Atas Artikel

Iklan Tengah Artikel 1

Iklan Tengah Artikel 2

Iklan Bawah Artikel