-->
মহেশখালীতে আবারও টমটম এক্সিডেন্ট, দুর্ঘটনা রোধে উদ্যোগ নেই

মহেশখালীতে আবারও টমটম এক্সিডেন্ট, দুর্ঘটনা রোধে উদ্যোগ নেই

অনভিজ্ঞ ও নতুন চালকের হাতে যাত্রীদের ভাগ্যের চাবি


নিজস্ব প্রতিনিধি।। মহেশখালীতে আবারও টমটম দুর্ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্ততঃ ৭ জন আহত হয়েছে। উপজেলায় প্রায় প্রতিদিনই এমন দুর্ঘটনা ঘটে চললেও এ সবের প্রতিকারের কোনো কার্যকর উদ্যোগ নেই সংশ্লিষ্টদের।

জানাগেছে -মহেশখালীর প্রধান সড়কে হোয়ানক ইউনিয়নের কেরুনতলী এলাকার নয়াপাড়া সংলগ্ন পল্লী বিদ্যুৎ সাবস্টেশনের কাছে আজ একটি টমটম দুর্ঘটনা ঘটেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন সড়কের ওই স্থানে বিপরীত দিক থেকে আসা দুটি টমটমের মধ্যে পরস্পর মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে দু'টি টমটমই সড়ক থেকে ছিটকে পাশের খাদে পড়ে যায়। আহত হয় দুই টমটমের চালকসহ প্রায় ৫ যাত্রী। আহত একজনের অবস্থা সংকটাপন্ন বলে জানাগেছে। গুরুতর আহত হওয়া ওই ব্যক্তিকে মহেশখালী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

আজ দুপুরের দিকে সংগঠিত এ দুর্ঘটনার পর যাত্রীদের আর্ত চিৎকারে লোকজন এগিয়ে এসে দুর্ঘটনা কবলিতদের উদ্ধার করে। আহতরা মহেশখালী হাসপাতালসহ বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানাগেছে।

দুর্ঘটনার আগে দু'টি টমটমই বেপরোয়া গতিতে চলছিল, দু'টি গাড়ির ড্রাইভারই গাড়ি চালানোয় অনভিজ্ঞ ও নতুন চালক ছিল বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান।

প্রসঙ্গতঃ মহেশখালী সড়কের উন্নয়ন কাজ শেষ হওয়ার পর পিচঢালা ভালো সড়ক পেয়ে প্রায়সব ড্রাইভারই বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালাতে শুরু করেছে। আর অধিকাংশ টমটমের ড্রাইভার অনভিজ্ঞ ও নতুন চালক। তারা বিভিন্ন পেশা পাল্টিয়ে চমটম চালানায় এসেছে বলে সূত্রে প্রকাশ। যার ফলে প্রতিনিয়তই এখানে টমটম দুর্ঘটনা ঘটে চলেছে। ধারাবাহিক দুর্ঘটনা ঘটে চললেও সংশ্লিষ্টরা কার্যতঃ এ নিয়ে কোনো কার্যকর ব্যবস্থা নিচ্ছেন না বলে মনে করেন ওয়াকিবহাল মহল।

শিরোনাম ছিলো.. "মহেশখালীতে আবারও টমটম এক্সিডেন্ট, দুর্ঘটনা রোধে উদ্যোগ নেই "

Post a Comment

Iklan Atas Artikel

Iklan Tengah Artikel 1

Iklan Tengah Artikel 2

Iklan Bawah Artikel