-->
মাতারবাড়িতে রাতে রান্না করা খাবার নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে কিশোরীকে দলগত যৌন নিপীড়ন, গ্রেফতার ১

মাতারবাড়িতে রাতে রান্না করা খাবার নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে কিশোরীকে দলগত যৌন নিপীড়ন, গ্রেফতার ১


নিপীড়নকারিদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবি করেছে কিশোরীর পিতা
রকিয়ত উল্লাহ।। মহেশখালীর মাতারবাড়িতে সাইরারডেইলের ৪৪ পরিবার এলাকায় এক কিশোরীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে দেলোয়ার নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। সরকারি পরিসেবা সার্ভিস  ৯৯৯ নম্বরে এ অভিযোগ পেয়ে তাৎক্ষণিক ভাবে যৌন নিপিড়ককে গ্রেফতার করেছে মহেশখালী থানা পুলিশ। এ ঘটনায় দুই জনকে আসামি করে মহেশখালী থানায় সংশ্লিষ্ট আইনে একটি মামলা হয়েছে বলে জানা গেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মহেশখালী থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মো. আব্দুল হাই। মহেশখালীর সব খবরকে তিনি জানান - ৯৯৯ এ একটি যৌন নিপীড়ন এর অভিযোগে কল পেলে তাৎক্ষণিক ভাবে ব্যবস্থা নিয়ে এক জনকে আটক করে পুলিশ। এ বিষয়ে মহেশখালীর থানায় একটি মামলা হয়েছে।  গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিকে ওই মামলায় আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ২৫ মে রাত সাড়ে ১১টার সময় মাতারবাড়ির সাইরারডেইলের ৪৪পরিবার এলাকায় এক কিশোরী রাতে পার্শ্ববর্তী খালার বাসায় রান্না করা খাবার আনতে যায়। এ সময় স্থানীয় সেহের উল্লার পুত্র দেলোয়ার ও তার চাচাত ভাই শফি উল্লাহসহ আরও কয়েকজন বখাটে যুবক ওই কিশোকিকে মুখ চেপে ধরে স্থানীয় সাইক্লোন সেল্টারের আশপাশের এলাকায় নিয়ে যৌন নিপীড়ন চালিয়ে রাত আডাইটার দিকে বখাটে মাস্তানরা চলে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন কিশোরীকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে কিশোরীর বাড়িতে নিয়ে আসে। ওখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর কিশোরীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ (কমেক) হাসপাতালে নিয়ে যান।

কিশোরির পিতা এ ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওয়াতায় আনতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

[ এ বিষয়ে রকিয়ত উল্লাহর আরও প্রতিবেদন পেতে সঙ্গে থাকুন ]

শিরোনাম ছিলো.. "মাতারবাড়িতে রাতে রান্না করা খাবার নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে কিশোরীকে দলগত যৌন নিপীড়ন, গ্রেফতার ১"

Post a Comment

Iklan Atas Artikel

Iklan Tengah Artikel 1

Iklan Tengah Artikel 2

Iklan Bawah Artikel