আমরা মহেশখালীর কথা বলি..

কালারমার ছড়ায় নামে গণশৌচাগার হলেও তালাবদ্ধ থাকে সর্বক্ষণ - মহেশখালীর সব খবর

কালারমার ছড়ায় নামে গণশৌচাগার হলেও তালাবদ্ধ থাকে সর্বক্ষণ


ফুয়াদ মোহাম্মদ সবুজ।। মহেশখালীর কালারমার ছড়া বাজারে মাঠের পাশেই উন্মুক্ত স্থানে স্থাপন করা শৌচাগার জনসাধারনের জন্য সর্বকক্ষন খোলা রাখার কথা থাকলেও সেটি সবসময় তালাবদ্ধ থাকার অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। এ অবস্থায়  বিপাকে পড়েছে দোকানদারসহ বাজারে আসা সাধারন মানুষ।

গন এ শৌচাগারটি স্থাপন করা হয়েছে প্রত্যাশী সমৃদ্ধি কর্মসূচী ও পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ) সংস্থা দুটোর সহযোগিতায়। জনসাধারণের কল্যানের জন্যে অলাভজনক এই দুই সংস্থার সমন্বয়ে গণশৌচাগারটি স্থাপন করলেও অল্পদিনেই তাদের বিরুদ্ধে উঠে অভিযোগ।

এলাকাবাসীরা জানান, স্থানীয় নাগু নামে এক দোকানদার শৌচাগারটি দেখাশোনার দায়িত্ব পালন করে আসলেও  সেখানে বেশিরভাগ সময় নাগুুর অনুপস্থিতি লক্ষনীয়।ফলে শৌচাগারটি থেকেও না থাকার মতো অবস্থা আছে বলে মনে করছেন তারা। এতে তাদের দূর্ভোগ ক্রমেই বাড়ছে।

এ বিষয়ে দায়িত্বরত নাগু জানান, প্রত্যাশী থেকে  গনশৌচাগারটি দেখা-শোনার দায়িত্ব তাকে দেওয়া হয়েছে। এবং জনপ্রতি তিন টাকা করে নিয়ে শৌচাগারটি ব্যবহারের অনুমতি দিতে তাকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তিনি আরো জানান, জনপ্রতি তিন টাকা করে নিলে তার শ্রমের সঠিক মূল্য না হওয়ায় তিনি আরো দুই টাকা করে বেশি অর্থাৎ পাঁচ টাকা করে নেন। তিনি অভিযোগ করে বলেন,  এ কাজের জন্য প্রত্যাশী তাকে আলাদাভাবে কোন বেতন দেয় না। সবসময় বন্ধ থাকার কারন সম্পর্কে তিনি বলেন, তিনি ব্যক্তিগত কাজে অনেকসময় দূরে থাকেন। ফলে তিনি শৌচাগারটি তালাবদ্ধ করে রাখেন। উন্মুক্ত অবস্থায় থাকলে জনসাধারনের অপব্যবহারে শৌচাগারটি ব্যবহারের অনুপযোগী হওয়ার আশঙ্কা তৈরী হবে বলে জানান তিনি। এই বিষয়ে প্রত্যাশীর কর্মকর্তা গিয়াসউদ্দিনকে একাধিক বার ফোন করেও মুঠোফোনে না পাওয়ায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

No comments

Powered by Blogger.