গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, পহেলা বৈশাখ ছাড়া রমনায় আর কোনো অনুষ্ঠান নয়। আমরা এখানে আর কোনো অনুষ্ঠানের অনুমতি দেবো না। কেননা রমনা পার্কের সৌন্দর্য ও ঐতিহ্য রক্ষা করতে হবে। তবে এটা মন্ত্রণালয় একা পারবে না। এজন্য সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। 

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে রাজধানীর ফার্মগেটে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে ‘রমনা পার্ক : সৌন্দর্য, উপযোগিতা ও ঐতিহ্য সুরক্ষা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। পরিবেশবাদী নাগরিক সমাজ এ সভার আয়োজন করে। 

মন্ত্রী বলেন, পার্কের শতবর্ষী গাছ ও সৌন্দর্য রক্ষার জন্য অপ্রয়োজনীয় ও ফলজ গাছ কেটে ফেলা হবে। এজন্য পরিবেশবাদী ও সংশ্লিষ্ট বিশারদদের নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হবে। তারা নির্ধারণ করবেন কোন গাছ কাটা হবে, আর কোনটা থাকবে। 

লেখক-অধ্যাপক মুনতাসির মামুনের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন- পরিবেশবিদ দ্বিজেন শর্মা, স্থপতি তুগলক আজাদ, গৃহায়ন ও গণপূর্ত সচিব  মোহাম্মদ মঈন উদ্দিন আবদুল্লাহ, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের (বাপা) সাধারণ সম্পাদক ড. মো. আব্দুল মতিন, রমনা পার্ক ওয়াকার্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট এ আর খান।

টেক শিখি
শেয়ার:

মন্তব্য দিন: