তৃণমূল রাজনীতি থেকে এসেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। অনেক স্মৃতি জড়িয়ে আছে ময়মনসিংহেও। ময়মনসিংহে এসে বেশ পুরোনো স্মৃতির কথা বলেন তিনি। 

কিশোরগঞ্জ জেলার হাওর‍াঞ্চলের ভাটিরশার্দূল রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) সমাবর্তনে যোগ দিতে সোমবার মহুয়া-মলুয়ার দেশ ময়মনসিংহে যান। 

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে জামালপুরে আশেক মাহমুদ কলেজের ৭০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে সেখান থেকে হেলিকপ্টারে করে ময়মনসিংহে আসেন তিনি। এ সময় এ সময় বিরোধী দলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদসহ জেলা প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তারা তাকে স্বাগত জানান। 

পরে সার্কিট হাউজে অবস্থান করেন তিনি। 

সন্ধ্যা ৭টার দিকে তার সঙ্গে সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদের সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়।

সাক্ষাৎকালে নিজেকে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ নিজেকে মুক্ত হিসেবে দেখেন না বলেও হাস্যরস করেন।  

এসময় তারা কুশলাদি বিনিময় করেন। রওশন এরশাদ রাষ্ট্রপতিকে বলেন, ‘কেমন আছেন ভাই? আপনার তো বন্দি জীবন! ময়মনসিংহে কেমন লাগছে?’ 

সহাস্য উত্তরে রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘ভালোই লাগছে।’ 

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বিরোধীদলীয় নেতার সাক্ষাতকালে উপস্থিত ছিলেন ময়মনসিংহ-৫ (মুক্তাগাছা) আসনের জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য সালাহউদ্দিন মুক্তি ও ময়মনসিংহ-৮ (ঈশ্বরগঞ্জ) আসনের জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য ফকরুল ইমাম উপস্থিত ছিলেন। 

পরে এমপি সালাহউদ্দিন মুক্তি বাংলানিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

সাক্ষাতে উপস্থিত জাতীয় পার্টির আরেকজন নেতা বলেন, আলাপকালে রাষ্ট্রপতি ময়মনসিংহের বিভিন্ন স্ম‍ৃতির কথা বলেন। এখানে তার বন্ধু-বান্ধবদের কথাও বলেন তিনি। 

সূত্র জানায়, রাষ্ট্রপতি ময়মনসিংহ বিভাগ বাস্তবায়নে বিশেষ অবদান রাখায় রওশন এরশাদকে অভিনন্দন জানান। 

বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী ময়মনসিংহ বিভাগ করে দিয়েছেন। আপনার জন্যই দ্রুত ময়মনসিংহ বিভাগ হয়েছে।’ 

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বিরোধীদলীয় নেতাকে বলেন, দেশ ভালো চলছে। আমাদের রেমিট্যান্স বেড়েছে। 

দল-মত নির্বিশেষে দেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রায় ভূমিকা রাখার জন্যও সবাইকে আহ্বান জানান তিনি। 

বিরোধীদলীয় নেতার জনসংযোগ কর্মকর্তা মামুন হাসান বাংলানিউজকে বলেন, ‘মহামান্য রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বিরোধী দলীয় নেতার সাক্ষাৎ পর্ব ছিল প্রায় একঘণ্টার। এতে নবগঠিত বিভাগের উন্নয়ন প্রসঙ্গে দিক-নির্দেশনামূলক আলোচনা হয়েছে।

ব্রহ্মপুত্র নদের ওপারে বিভাগীয় অফিসগুলো হলে সুন্দর ও পরিকল্পিত মহানগর গড়ে উঠবে বলে মত দেন বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ। 

রাষ্ট্রপতি সার্কিট হাউজে রাত্রিযাপন শেষে মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় বাকৃবি’র ৭ম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন।  

অনুষ্ঠান শেষে তাকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীর উদ্দেশে রওনা দেবে। 
শেয়ার:

মন্তব্য দিন: