সপ্তাহ ব্যাপি সরকারি সফর শেষে মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল কালাম ১৫ জুলাই রবিবার কক্সবাজার বিমান বন্দরে পৌছালে তাকে উষ্ণ ফুলেল শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানো হয় মহেশখালীবাসীর পক্ষ থেকে। এসময় উপস্থিত ছিলেন আবুল আলা মোহাম্মদ ফারুক ও মোহাম্মদ নেছার।
মানুষের শ্রদ্ধা, ভালবাসা, সম্মান পেতে অর্থ, বিত্ত্ব-বৈভব, প্রভাব-প্রতিপত্তি মূখ্য বিষয় নয়, এক্ষেত্রে কর্মই তার প্রকৃত গুরুত্ব বহন করে, কারন কর্মই মানুষকে স্মরণীয় করে রাখে, মহোদয় মহেশখালী আসার পর থেকেই মহোদয়ের কর্মদক্ষতার মাধ্যমে মহেশখালীতে সামাজিক, অর্থনৈতিক অনেক উন্নয়ন করেছেন।
এছাড়াও উন্নয়ন কর্মকান্ডে দায়িত্ব পালন, সামাজিক ও ধর্মীয় উৎসব দিবসগুলো যথাযথ মর্যাদায় পালন, সামাজিক অবক্ষয় রেধে মাদক, সন্ত্রাস, রাজনৈতিক সহিংসতা রোধ, বাল্য বিয়ে, যৌতুকসহ সর্ব ক্ষেত্রেই সফল ভূমিকা পালন করেন। এছাড়াও মোবাইল কোর্ট পরিচালনা, রাস্তা-ঘাট, অবকাঠামোর উন্নয়ন, যানজট নিরসন, আইনশৃংখলার উন্নয়নেও অভূতপূর্ব অবদান রাখেন।
তিনি সৎ, নীতিবান কর্মকর্তা হওয়ায় অতি অল্প সময়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা থেকে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এডিসি) হিসেবে বান্দরবন জেলায় পোষ্টিং হচ্ছেন। এদিকে মহেশখালীবাসী একজন নিষ্ঠাবান কর্মকর্তাকে হারিয়েছেন। তারপরও স্যারের উন্নতি কামনা ও সাফল্যের প্রতি জানাই অভিনন্দন।
শেয়ার:

মন্তব্য দিন:

0 comments so far,add yours