মুসলমানদের জন্য সবচেয়ে খুশীর দিন ০২( দুই) টি, ঈদ উল ফিতর আর ঈদ উল আযহা।গেল ঈদ উল আযহার মতো এই একটি পবিত্র দিনে আমার ইউনিয়ন বাসীদের সাথে কৌশল ও সালাম বিনিময় করতে পারলামনা,পিতার কবরটা জিয়ারত করা হলনা,পারলামনা বৃদ্ধ মাকে সালাম দিতে,স্ত্রী পুত্রদের সাথে ঈদ করতে।আমি ষড়যন্ত্রের স্বীকার , (একটি নিশংস,নির্মম,পৈশাচিক জিয়াবুল হত্যা মামলায় হুকুমের আসামী বানালো আমায়)আমি নির্দোষ,এত বড় হত্যাকান্ডে কিভাবে পারলেন,অত্যন্ত সংঘোপনে মতামত দিলেন একজন নিরপরাধীকে আসামী বানাতে!মাতার বাড়ীর সর্বস্তরের জনগন জানেন জন্মলগ্ন থেকে আমি সন্ত্রাসের বিপক্ষে।সন্ত্রাসীদের সাথে আপোষ করিনি কখনো, ভবিষ্যতেও করবনা।This is the final decision.মাতার বাড়ীতে বারে বারে ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় আমি আসামী হচ্ছি।

ইতি পূর্বে তা থেকে আল্লাহ আমাকে রক্ষাও করেছেন।প্রকল্পে এক কড়া জমি নেই আমার,এল,ও মারা মামলার আসামী হলাম আমি।ঐ মামলা মাথায় নিয়ে নির্বাচন করেছি আল্লাহর রহমতে চেয়ারম্যান হলাম।আমার ভয় হচ্ছে এ মামলাটা খুবই মর্মান্তিক জানিনা আল্লাহ কি করেন।নিশ্চয় সহায় হবেন যেহেতু আমি ১০০% নির্দোষ।ষড়যন্ত্রকারীরা সুকৌশলে হত্যাকান্ডের পর পর প্রকৃত হত্যাকারীদের আড়ালে রেখে আমাকে দোষী সাব্যস্ত করে বিভিন্ন টিভি, মিডিয়ায়,এফ,বিতে বাদী পক্ষকে দিয়ে বিবৃতি দেয়া শুরো করালেন,এক মাস আগের অডিওটি প্রচার করলেন জিয়াবুল হত্যাকান্ডকে পুজিঁ করে( ফেক্টঃআমাকে হুকুমের আসামি বানানো)।জিয়াবুলের মৃত্যুর পর জানাজায় যেতে চেয়েও যেতে পারলাম না।

তাও কাজে লাগাল ষড়যন্ত্রকারীরা, বলে বেড়াতে শুরু করল নির্দোষ হলে জানাযায় আসে নাই কেন?একটা প্রশ্ন অডিওটি এতদিন প্রচার নাকরে জিয়াবুল হত্যার জন্য অপেক্ষা করল কেন? আসলে  তারা কি জানে জিয়াবুলকে যখনি হত্যা করা হবে হত্যাপরবর্তী সময়ে অডিওটি প্রচার করবে।এটা যদি হয় আসামী থেকে তারা বাদ গেল কেন? আমার মতে তাদেরও কি আসামী করা উচিত ছিলনা?

অডিওটি যদি আমাকে আসামী করার মূল অস্ত্র হয়ে থাকে সংশ্লিষ্টদের আমি অনুরোধ করব আপনারা তদন্ত করোন অডিওটি কোথায়,কোন জায়গায়,কবে কে রেকর্ড করেছে তা বের করতে হবে এবং জিয়াবুল হত্যার পর এটা প্রচারের জন্য কারা ইন্দন যোগিয়েছে সব কিছু জন সমক্ষে খোলাসা করা দরকার।আমি আসামী হয়েগেছি সমস্যা নাই।এর আগেও এরকম ষড়যন্ত্রমুলক মামলার আসামী আরো ০৪( চার) টি মামলায় হয়েছিলাম।বি,এন,পি আমলে (নারী নির্যাতন,বেড়াপুড়া) ০২ টি।আওয়ামী লীগ আমলে (এল,ও,মারা আর জিয়াবুল হত্যা) ০২ টি।আমি "কিওগ্যালীগ" সব আমলে আমার জন্য মামলা রেড়ি থাকে।ষড়যন্ত্রকারীরা হত্যার মুটিভ আমার দিকে ঠেলে দিয়ে মূল হত্যাকারীদের পালানোর সুযোগ করে দিয়েছেন।আমি এখন আসামী এ হত্যার পেছনে আমার দোষ আছে কি নাই তদন্তে তা বেরিয়ে আসবে।

আজহোক কালহোক হয় জেলে যাব নতুবা জামিন পাবো এটা আদালতের এখতিয়ার।যড়যন্ত্র করে আল্লাহর কাছে রেহাই পাওয়ার সুযোগ নাই।হত্যাকারীদের পালানোর সুযোগ আপনারাই তৈরী করে দিয়েছেন।মামলার তদন্তে পুলিশ আসলে আমার ফাসিঁ চান।মনে করবেননা যে এ যড়যন্ত্রের রহস্য কোথায় আমি এগুলি বের করতে পারবনা।বের হবে ইন্সাল্লাহ।হয়ত ভাবতে পারেন আমি মামলা থেকে পার পাওয়ার জন্য এগুলি লিখতেছি কিন্তু না দিন দুপুরের ঘটনা পার পাওয়ার কোন সুযোগ নাই হত্যাকারী যদি আমিও হই এ নৃশংস হত্যাকান্ডের আসামিদের আইনের আওতায় আসতেই হবে।রেহাই কেউ পাবেনা আমি আনব ইন্সাল্লাহ।সকলের দোয়া চাই।
Share To:

Sobkhabor24x7

Post A Comment:

0 comments so far,add yours