আবুল বশর পারভেজ  ও এম. বশির উল্লাহ ।।

মহেশখালী পৌরসভার গোরকঘাটা বাজারে দিন দুুপুরে ব্যবসায়ীর উপর হামলা করে দোকান লুটপাট করেছে একদল দূরবৃত্ত। এ ঘটনায় মহেশখালী থানায় লিখিত এজাহার  দায়ের করেছে ব্যবসায়ীর পরিবার। ঘটনাটি ঘটেছে(২৭) অক্টোবর সকাল সাড়ে ১০ টায় গোরকঘাটার বাজারের মসজিদ সড়কের সাধন পালের দোকানের সম্মুখে শাহাজান মুরগী র্ফাম নামক  ব্যবসায়িক প্রতিষ্টানে। ঘটনা সুত্রে প্রকাশ পুটিবিলার আবু তালেবের পুত্র মো: শাহাজাহানের সাথে বড় মহেশখালীর দেভেঙ্গা পাড়ার মৃত আবুল শামার পুত্র আব্দু রহিম প্রকাশ লক্ষীর মধ্যে ব্যবসা সংক্রান্ত লেনদেন ছিল। রহিম গোরকঘাটা চর পাড়া এলাকার  সোলতান আহমদ ডিলারের মেয়ের জামাই হওয়ায় রহিম। এ সুভাধে  শাহাজান এর নিকট থেকে পাওনা টাকা  উদ্ধার করতে তার শ্যালক শওকত আলম নিয়ে শাহাজানের ব্যবসায়ীক প্রতিষ্টানে হামলা করে।  শওকতের সাথে রহিম ও আরো কয়েকজন অজ্ঞাত ভাড়াটে লোক নিয়ে মুরগীর দোকানদার শাহাজানকে কেজী সীল ও লোহার রট দিয়ে কপালে পিটে ও ঠোটে মারাত্বক জখম করে। ব্যবসায়ী শাহাজানকে হামলা করার সময় গোরকঘাটা এলাকার অনেক ব্যবাসী ও বাজারের লোকজন উপস্থিত থাকলে ও তাদের ভূমিকা ছিল ফুটবল খেলার দর্শকের মত।গোরকঘাটা বাজার বনিক কল্যাণ সমিতির এঘটনার পর বাজারে পুলিশ উপস্থিত হলেও  কোন ধরনের ভূমিকা রাখেনি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে। যে কোন সময় বাজারের ব্যবসায়ীদের উপর হামলা হলে অচেতন অবস্থায় থাকবে গোরকঘাটা বাজার বণিক কল্যাণ সমিতি।  

আহত শাহজাহান তার লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেন,আমি দীর্ঘদিন ধরে গোরকঘাটা লামার বাজারে মোরগীর  ব্যবসা করে আসছি  আব্দু রমিরে সাথে আমার ব্যবসায়িক লেনদেন ছিল । আমি ব্যবসায়িক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হলে ও প্রতি মাসে আমি রহিমের কিছু পাওনা টাকা পরিশোধ করে আসছি। শনিবার ভোরে আমি আমার দোকানে এসে যথারীতি মুরগী বিক্রয় ওজন করতেছিলাম এ সময় হঠাৎ কিছু বুঝে ঊঠার আগ মূর্হুতে দোকান  বন্ধ করতে বলে হামলা শুরু করে।আমাকে মারাত্বক জখম করে ক্যাশে থাকা  মুরগি বিক্রির  ৪৫,৪০০শত টাকা, মোবাইল ফোন লুটপাট করে বীর দর্পে পালিয়ে যায়।দোকানে হামলার বিষয়ে সংবাদ প্রচার হলে গোরকঘাটা বাজারের পুটিবিলার কাচা মাল ব্যবসায়ীরা শাহাজানকে উদ্ধার করে মহেশখালী হাসপাতালে নিয়ে আসে। গোরকঘাটা বাজারে দোকানে প্রকাশ্য হামলা লুটপাট ও রক্তপাতের সংবাদ পেয়ে মহেশখালী থানার এস আই দীপক  ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।  

হামলা কারীরা মহেশখালী কোর্টেও একজন আইন জীবির আত্বীয়  হওয়ায় তিনি দ্রুত নিস্পত্তী করার বিষয়ে  আহত ব্যবসায়ী শাহাজানের পরিবারকে আশ^স্থ করার কারনে এখনো মামলা রুজু হয়নি।এ ব্যাপারে মহেশখালী থানার দয়িত্ব প্রাপ্ত ওসি একে এএম শফিকুল আলম চৌধুরী, বাজারে হামলার ঘটনার বিষয়ে লিখিত এজাহার পেয়েছি। অপরাধীরদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 



শেয়ার:

মন্তব্য দিন:

0 comments so far,add yours