-->
ছোট মহেশখালীতে সরকারী ত্রাণ নিয়ে লঙ্কাকাণ্ডঃ ঘুষ কমিশন নিতে নারীর শ্লীলতাহানি :: (ভিড়িও)

ছোট মহেশখালীতে সরকারী ত্রাণ নিয়ে লঙ্কাকাণ্ডঃ ঘুষ কমিশন নিতে নারীর শ্লীলতাহানি :: (ভিড়িও)

আ ন ম হাসান, মহেশখালীর সব খবর ।।
মহেশখালী উপজেলার ছোট মহেশখালী ইউনিয়নে ডব্লিউএফপি(জাতিসংঘ)’র ত্রাণের টাকার ভাগ না দেওয়ায় মারধর ও মোবাইল ভাংচুরসহ নারীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ পাওয়া গেছে ৷ ১৮ জুলাই (শনিবার) বেলা ১টার দিকে ঘটনাটি ঘটে। এ নিয়ে সংশ্লিষ্টদের শাস্তি দাবি করেছেন ভূক্তভোগীর। মহেশখালীর সব খবর এর কাছে তারা ঘটনার বিবরণ দিয়ে বেশ ক্ষুব্ধতা প্রকাশ করেন।

দালাল কর্তৃক লাঞ্ছনার শিকার ভুক্তভোগীরা মহেশখালীর সব খবরকে জানান -১৮ জুলাই (শনিবার) ডব্লিউএফপির পক্ষ হতে ছোট মহেশখালী ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডে নগদ টাকা বিতরণ করা হচ্ছিল ৷ স্থানীয় দুস্থরা নিজেদের নামে পাওয়া অর্থ সহায়তা নিয়ে যার যার বাড়ীতে চলে আসেন । এ রকম ত্রাণ পায় ৫ নম্বর ওয়ার্ডের আরাফাত হোসেনের স্ত্রী জায়তুন নাহার এবং মোঃ সাগরের স্ত্রী ছালেহাতুল জান্নাতও ৷ এক পর্যায়ে বেলা আনুমানিক ১টার দিকে স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাজাহানের নাম বলে প্রতিজন হতে আড়াই হাজার টাকা দাবি করে তার চাচাতো ভাই সালাহ উদ্দিন ৷
এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে টাকা দেওয়া না দেওয়া বিষয়ে বাকবিতণ্ডা চলতে থাকে ৷

বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে স্থানীয় শহীদুল ইসলামের স্ত্রী রূপবান আক্তার তা দেখতে গেলে চরম উত্তেজিত সালাহ উদ্দিন তার এমন ঘুষ দাবির ঘটনার ভিড়িও করার অপবাদ দিয়ে ওই নারীকে ব্যাপক লাঞ্ছিত করতে থাকে। সালাহ উদ্দিন স্থানীয় নেতার লোক ও প্রভাবশালী হওয়ায় গ্রামের এ দরিদ্র লোকজন তার এমন আচরণের প্রতিবাদ করতেও সাহস পায়নি। এক পর্যায়ে ঘুষ নিতে আসা সালাহ উদ্দিন ওই নারীর এন্ড্রয়েড ফোন কেড়ে নিয়ে ঘটনাস্থলেই ভেঙ্গে ফেলে। ওই নারী অভিযোগ করে বলেন -এ সময় তার গায়ে অনৈতিক ভাবে হাত তুলে এই যুবক। পরিধানের কাপড় ধরে টানাহেঁচড়া করে তার শ্লীলতাহানি করা হয়। দাবী -এই নারীর।
ভিড়িও দেখুন>>
  এদিকে ত্রাণ পাওয়া লোকজন জানান -পরে আতংকিত মহিলা ও তাদের পরিবারের লোকজন সালাহ উদ্দিনকে শান্ত করতে প্রত্যেকেই তার চাহিদা মাফিক টাকা ফেরত দিলে এ দালাল ঘটনাস্থল হতে চলে আসে ৷

এদিকে এহেন ঘটনার কথা এলাকায় জানাজানি হলে সন্ধ্যায় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাজাহান দুই মহিলার স্বামীর হাতে দুই হাজার করে চার হাজার টাকা ফেরত দেই ৷ এবং মোবাইলের ক্ষতিপূরণ বাবদ একহাজার টাকা তাদেরকে দিতে বলে ৷ তাছাড়া ঘটনার বিষয়ে কারো কাছে অভিযোগ করলে সমস্যা হবে বলেও হুমকি দেন তিনি ৷
আরও ভিড়িও দেখুন>>
অভিযোগের বিষয়ে বক্তব্য জানতে আওয়ামী লীগ নেতা শাহাজাহানের মহেশখালীর সব খবর এর তরফে মোবাইল ফোনে গতকাল রাতে বেশ কয়েকবার ফোন করলেও তিনি ফোন কল রিসিভ করেননি। এ অবস্থায় তার মোবাইল ফোনে ক্ষুদে বার্তা পাঠিয়েও কোন প্রকার সাড়া পাওয়া যায়নি।

WFP’র কার্ড নিয়ে জনপ্রতিনিধি ও কতিপয় স্থানীয় নেতা ও তাদের দালালদের বিষয়ে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন আসছে।।

[ দাবির পক্ষে তথ্য ও প্রমাণ মহেশখালীর সব খবর এর কাছে সংরক্ষিত রয়েছে। ]

শিরোনাম ছিলো.. "ছোট মহেশখালীতে সরকারী ত্রাণ নিয়ে লঙ্কাকাণ্ডঃ ঘুষ কমিশন নিতে নারীর শ্লীলতাহানি :: (ভিড়িও)"

Post a Comment

Iklan Atas Artikel

Iklan Tengah Artikel 1

Iklan Tengah Artikel 2

Iklan Bawah Artikel