-->
ছোট মহেশখালীর চেয়ারম্যান জিহাদ বিন আলী ষড়যন্ত্রের শিকার। দাবি -স্থানীয়দের ::

ছোট মহেশখালীর চেয়ারম্যান জিহাদ বিন আলী ষড়যন্ত্রের শিকার। দাবি -স্থানীয়দের ::

স্টাফ রিপোর্টার, মহেশখালীর সব খবর ।। 
ছোট মহেশখালী এলাকায় সংগঠিত ঘটনার বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান জিহাদ বিন আলীর কোন ধরনের সম্পৃক্ততা নেই, তিনি রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার ও এক ধরণের ষড়যন্ত্রের মধ্যে পড়েছেন। -এ দাবি স্থানীয় একাধিক বাসিন্দার।

উদ্ভূত বিষয় নিয়ে জানতে চাইলে একাধিক সূত্রে জানাযায়, সাম্প্রতিক করোনাকালীন দুর্যোগ সময়ে চেয়ারম্যান খুব দক্ষতার সাথে সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন ত্রাণ সহায়তা সার্বজনীনভাবে বিতরণ করে এলাকায় প্রশংসিত ও আলোচিত চেয়ারম্যান হিসেবে মেধার স্বাক্ষর রাখেন ৷ যার ধরুন এলাকার কিছু চিহ্নিত বিরোধী পক্ষ ও আগামী নির্বাচনে প্রার্থী হতে দৌড়ঝাঁপে থাকা কিছু লোক চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে নানান ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয় ৷ এ ষড়যন্ত্র দীর্ঘদিন থেকে চলে আসছিল বলে সূত্রের দাবি। সূত্র জানায়, তারা উভয়েই মিলিত হয়ে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সাধারণ জনগণকে উস্কে দিয়ে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটায় বলে তারা মহেশখালীর সব খবরকে নিশ্চিত করেছেন ৷

তারা আরও বলেন, মহেশখালীতে বর্তমানে যত ইউপি চেয়ারম্যান আছেন তাদের মধ্যে আওয়ামী লীগের ঘনিষ্ঠ ও বিশ্বস্ত চেয়ারম্যান হিসেবে জিহাদ বিন আলী নিজের অবস্থান পাকাপোক্ত করতে সমর্থ হন ৷
দলীয় ভাবমূর্তি রক্ষার্থে তিনি সরকারী বিভিন্ন ত্রাণ সহায়তা সুষম বণ্টনের মাধ্যমে আলোচনায় আসেন ৷ এবং করোনাকালীন সময়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে এলাকায় কাজ করে প্রশাসনকে সহযোগিতা করে যাচ্ছেন ৷ তাতে কিছু কুচক্রী মহল ও তার বিরোধী পক্ষের চক্ষুশূলে পরিণত হন ৷ এ লক্ষ্যে দীর্ঘদিন হতে তারা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে নানান ষড়যন্ত্র করে আসছে ৷ ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে এলাকার সহজ সরল নারী পুরুষদের ভুল বুঝিয়ে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে লেলিয়ে দেয় ৷ এতে সচেতন সমাজ, সংবাদকর্মী ভাইদের বিভ্রান্ত না হওয়ার অনুরোধ জানান স্থানীয়রা।

এদিকে এলাকার অপর একটি পক্ষ বলছে -চেয়ারম্যান আলী নিজেই এলাকায় বিভাজন সৃষ্টি করে রেখেছে, এতে তিনি বার বার বিতর্কিত হচ্ছেন। এটি তার রাজনৈতিক দূরদর্শিতা অভাব বলে মনে করেন তার। এ বিষয়ে বক্তব্য নিতে তার মুঠোফোনে বার বার কল দিয়েও সাড়া পাওয়া যায়নি। তাই ঘটনার বিষয়ে তার বক্তব্য প্রকাশ করা সম্ভব হয়নি।

শিরোনাম ছিলো.. "ছোট মহেশখালীর চেয়ারম্যান জিহাদ বিন আলী ষড়যন্ত্রের শিকার। দাবি -স্থানীয়দের ::"

Post a Comment

Iklan Atas Artikel

Iklan Tengah Artikel 1

Iklan Tengah Artikel 2

Iklan Bawah Artikel