-->
ভলগেট দিয়ে লবণ পরিবহন, প্রতিবাদে সামিল কার্গো মাঝিমাল্লা’রা

ভলগেট দিয়ে লবণ পরিবহন, প্রতিবাদে সামিল কার্গো মাঝিমাল্লা’রা


অসীম দাশ।।

স্টিলবডি (ভলগেট) নৌ-যান হঠাৎ করে মহেশখালীর বিভিন্ন গুদিঘাট থেকে লবণ বোঝায় করে পরিবহণ করায় কর্মহীন হয়ে পড়েছে প্রাচীনতম কার্গো বোট মালিক, শ্রমিক ও মাঝি মাল্লারা। আর এ কারণে মহেশখালীতে ভলগেট দিয়ে নৌ-পথে লবণ পরিবহন বন্ধের দাবিতে কার্গো বোট মালিক-শ্রমিকেরা মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। এতে সংহতি প্রকাশ করে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষও ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন-বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ লবণ উৎপাদনকারী মহেশখালী উপজেলায় (ভলগেট) প্রবেশ করে অবৈধ ভাবে লবণ পরিবহন করছে। সব লবণ সস্তা দামে ভলবেট গুলো বেআইনি ভাবে নিয়ে যাচ্ছে। আমরা এখনো পর্যন্ত কোন লবণ কার্গোবোটে ভরতে পারিনি। বর্তমানে আমরা ৪-৫ হাজার কার্গো বোটের শ্রমিকেরা বেকার হয়ে পড়েছি। নায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত হয়ে এখন আমরা মাঝিমাল্লারা নিজেদের বউ বাচ্চা নিয়ে ভীষণ কষ্টে দিনযাপন করছি। আমরা মহেশখালী থেকে ষ্টিল দ্বারা নির্মিত এই ভলগেট এর লবণ পরিবহণ নিষিদ্ধ করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করতে প্রসাশনের প্রতি দাবি জানাচ্ছি।”

সংহতি প্রকাশ করে দেওয়া বক্তব্যে মহেশখালী প্রেস ক্লাব সভাপতি আবুল বশর পারভেজ বলেন,“ হঠাৎ করে স্টিলবডির বলভেট এসে আমাদের একটি পেশাকে ধ্বংস করে দিচ্ছে; যে পেশার সাথে জড়িত আছে প্রায় দশ হাজার পরিবার। তাদের আজকের এই প্রতিবাদ সমাবেশে আমরা সংহতি জানাচ্ছি, একাত্মতা পোষণ করছি। 


মহেশখালী কার্গো মাঝিমাল্লা সমবায় সমিতি’র ব্যানারে এই প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখে-সংগঠনটির উপজেলা সভাপতি জাফর মাঝি, শহিদুল্লাহ মাঝি, ছৈয়দ করিম মাঝি, দেলায়ার মাঝি। এছাড়াও সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন মহেশখালী প্রেস ক্লাবের সভাপতি আবুল বশর পারভেজ এবং সহ-সভাপতি ছৈয়দ মোস্তফা আলী।

শিরোনাম ছিলো.. "ভলগেট দিয়ে লবণ পরিবহন, প্রতিবাদে সামিল কার্গো মাঝিমাল্লা’রা"

Post a Comment

Iklan Atas Artikel

Iklan Tengah Artikel 1

Iklan Tengah Artikel 2

Iklan Bawah Artikel