আমরা মহেশখালীর কথা বলি..

মাতারবাড়িতে সমন্বিত অবকাঠামো উন্নয়ন কার্যক্রম সংক্রান্ত সভা - মহেশখালীর সব খবর

মাতারবাড়িতে সমন্বিত অবকাঠামো উন্নয়ন কার্যক্রম সংক্রান্ত সভা

স্থানীয়দের চাকরি, পুনর্বাসন ও ক্ষতিপূরণ, জমির মূল্যবৃদ্ধিসহ বিভিন্ন বিষয়ে সিদ্ধান্ত


মাহবু্ব রোকন।। মাতারবাড়িতে সমন্বিত অবকাঠামো উন্নয়ন কার্যক্রম সংক্রান্ত এক সভা ১৯ জুন (শনিবার) মাতারবাড়ির কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্পের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় প্রকল্পের অগ্রগতি, অধিগ্রহণ করা জমির দাম বৃদ্ধিসহ মহেশখালীর স্থানীয়দের চাকরিতে অগ্রাধিকারসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত হয়।

দুপুরে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মামুনুর রশীদের সভাপতিত্বে এ মিডি সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কক্সবাজার-২ আসনের এমপি আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিক, বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক এড. সিরাজুল মোস্তাফা, কোল পাওয়ার জেনারেশন বাংলাদেশ লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল মোতালিব, মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মাহফুজুর রহমান, উন্নয়ন কাজে স্থানীয় পর্যায়ে সমন্বয় কমিটির সদস্য মশরফা জান্নাত, মাতারবাড়ির চেয়ারম্যান মাস্টার মোহাম্মদ উল্লাহ, ধলঘাটার চেয়ারম্যান কামরুল হাসানসহ সংশ্লিষ্টরা।

মহেশখালীর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয় সূত্র জানায় -সভায় সরকারের অগ্রাধিকার প্রকল্প মাতারবাড়ি কয়লাবিদ্যুৎ কেন্দ্র ও গভীর সমুদ্র বন্দরের কাজে মাতারবাড়ি-ধলঘাটাসহ মহেশখালীর স্থানীয়দের চাকরি নিশ্চিত করার বিষয়ে আলোচনা হয়। অভিজ্ঞ লোকজনের পাশাপাশি স্থানীয় অনভিজ্ঞ লোকজনকে কিভাবে চাকরি দেওয়া যায় তা নিয়ে আলোচনা হয়। তাছাড়া অধিগ্রহণ করা জমির মূল্যবৃদ্ধি, পুর্নবাসন ও অধিগ্রহণ সংক্রান্ত ক্ষতিপূরণের টাকা পাওয়াসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়।

সভায় বিভিন্ন প্রকল্প পরিচালকগণ প্রকল্পের অগ্রগতি তুলে ধরেন, মাতারবাড়িবাসীর পক্ষে বিভিন্ন দাবি উত্থাপন করে মাতারবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাস্টার মোহাম্মদ উল্লাহ। ধলঘাটায় বন্দরের জন্য অধিগ্রহণ করা জমির মূল্য বৃদ্ধির যৌক্তিকতা নিয়ে কথা বলেন ধলঘাটার চেয়ারম্যান কামরুল হাসান।

এ সময় মাতারবাড়ি কয়লাবিদ্যুৎ প্রকল্প বাস্তবায়নকারী ঠিকাদারী ও উপ-ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সুমিতমো করপোরেশন, পেন্টাওশেন কনেসট্রাকশন, আইএইচআই, তোসিবা ও পস্কো ইঞ্জিনিয়ারিং কনেসট্রাকশনের পক্ষ থেকে মাতারবাড়ি ও ধলঘাটা এলাকার দরিদ্র, কর্মহীন ৫ হাজার মানুষের জন্য বরাদ্দের ৫০ টন চাউল দুই ইউপি চেয়ারম্যান এর হাতে হস্তান্তর করেন কক্সবাজার-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিক।

এমপি আশেক ও জেলা প্রশাসক বিভিন্ন ঠিকাদারি সংস্থা ও বিদেশি সংস্থার প্রতিনিধিদের সাথে আলাদা ভাবে কথা বলে স্থানীয়দের চাকরিতে অগ্রধিকারের বিষয়ে তাগিদ দেন। এ নিয়ে সংশ্লিষ্টদের সাথে দ্রুত সময়র আবারও বৈঠক করার কথা রয়েছে বলে জানাগেছে।

No comments

Powered by Blogger.