বিদায়-বেলায় বিরহ ব্যথায় আঁখি ওঠে ছলছলি,যাবার বেলা যে আপরে কাঁদায় তারে মানুষ বলি। 
- জসিম উদ্দীন। 
মহেশখালীর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আবুল কালমের সাথে তার বন্ধু সদ্য প্রয়াত মোঃ রাশেদুল ইসলাম

মহেশখালীর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আবুল কালমের বন্ধু, কাছের সহকর্মী মোঃ রাশেদুল ইসলাম। অনেক ভাল মনের উদার মানুষ ছিলেন মিস্টার রাশেদুল। মানুষ হিসেবে বন্ধুত্বের প্রস্তাবে তিনি ছিলেন উদার মানবিক। গেল ক’দিন আগেও তিনি ছিলেন এই মর্তের একজন নিত্যচারি কর্মঠ ব্যক্তি। তবে আল্লা’র ইচ্ছায় তিনি আজ পরকালের বাসিন্দা। মহেশখালীর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের ব্যাচমেট সহকর্মী মোঃ রাশেদুল ইসলাম (১৬১৭১) ছিলেন ময়মনসিংহের ত্রিশালের উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

জীবনের শেষ সময় পর্যন্ত তিনি নিষ্ঠার সাথে এই দায়িত্ব পালন করে গেছেন। সম্প্রতি এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় তিনি মৃত্যুবরণ করেছেন। তার অপ্রত্যাশিত মৃত্যুতে কেঁদেছেন অনেকেই। কবির আদর্শে তাকেই আমরা ‘মানুষ’ বলি। 

বন্ধুত্বের ঋণ শোধ করবার ক্ষুদ্র চেষ্টা থেকে কিংবা সহকর্মীর দায়বদ্ধতা নতুবা স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধার স্মরণে আজ শুক্রবার বাদ জুমা মরহুম মোঃ রাশেদুল ইসলাম এর স্মরণে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করেন মহেশখালীর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আবুল কালাম। 

উপজেলা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে এই আয়োজনটি সম্পন্ন হয়। এতে মিলাদ ও মুনাজাত পরিচালনা করেন মহেশখালী কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মোরতাজ আহমদ। এতে মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়। 
শেয়ার:

মন্তব্য দিন: