-->
ইউএনও জামিরুল’কে বিদায় সংবর্ধনা দিলো প্রধান শিক্ষক সমিতি

ইউএনও জামিরুল’কে বিদায় সংবর্ধনা দিলো প্রধান শিক্ষক সমিতি

আ ন ম হাসান
মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ জামিরুল ইসলামের পদোন্নতি জনীত বদলীতে তাকে বিদায় সংবর্ধনা দিয়েছে বাংলাদেশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সমিতি, মহেশখালী। আজ বিকেল ৩টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথি উপজেলা র্নির্বাহী অফিসার মোঃ জামিরুল ইসলাম তার বক্তব্যে বলেন, “দীর্ঘ দুই বছর ধরে মহেশখালী উপজেলায় কর্মরত থাকাকালীন সময়ে মানুষের যে ভালোবাসা ও সহযোগীতা পেয়েছি তা বর্ণনাতীত। মহেশখালীতে পদায়ন হওয়ার পর মহেশখালী সম্পর্কে যে বিরূপ ধারণা জন্মেছিল তা যোগদানের পর কাজ করতে গিয়ে সম্পূর্ণ বিপরীত পেয়েছি। এখানকার মানুষ অনেক আন্তরিক ও সদালাপী। বিশেষ করে একটি ঘটনায় আজ উল্লেখ না করলে নয় - ইতোপূর্বে যে লোকটিকে আমি চিনতামও না। কিন্তু আজ সকালে এসে তিনি আমাকে নিয়ে লিখা কবিতার স্মারক উপহার দিয়ে গেলেন। এমন ভালবাসা সত্যি কাজের অনুপ্রেরণা বাড়ায়।”

“তাছাড়া আমি মহেশখালীর প্রত্যেকটি স্কুল ভিজিট করেছি। নিয়মিত খোঁজ খবর রেখেছি। অন্যান্য উপজেলার চেয়ে শিক্ষায় অনেক অগ্রসর হয়েছে মহেশখালীতে।”-যোগ করেন ইউএনও মি. জামিরুল।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আবু নোমান মুহাম্মদ আবদুল্লাহ সভাপতিত্বে এবং প্রধান শিক্ষক সমিতির সভাপতি মুন্সির ডেইল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাঈদ আল করিমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে পাঠ করেন ধলঘাটপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মৌলানা একরামুল হক এবং পবিত্র গীতা পাঠ করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক, আদিনাথ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিঠুন ভট্টাচার্য্য।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন- কায়দাবাদ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুহাম্মদ রবিউল হোছাইন, জাগিরাঘোনা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আবদুল গফুর প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে সকল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও স্থানীয় সাংবাদিকরাও উপস্থিত ছিলেন। 

শিরোনাম ছিলো.. "ইউএনও জামিরুল’কে বিদায় সংবর্ধনা দিলো প্রধান শিক্ষক সমিতি"

Post a Comment

Iklan Atas Artikel

Iklan Tengah Artikel 1

Iklan Tengah Artikel 2

Iklan Bawah Artikel