-->
মাতারবাড়িতে গ্যাস সিলিন্ডারে বিস্ফোরণে নিহতদের জানাজায় মানুষের ঢল

মাতারবাড়িতে গ্যাস সিলিন্ডারে বিস্ফোরণে নিহতদের জানাজায় মানুষের ঢল


আ ন ম হাসান।।
মহেশখালীর মাতারবাড়ীতে বেলুন ফুলানোর গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহতদেও নামাজে জানাযা সম্পন্ন হয়েছে।

২৩ জানুয়ারি (রবিবার) বিকাল ৩টার সময় মাতারবাড়ী দক্ষিণ মিয়াজীর পাড়ার ফকির মিয়াজী জামে মসজিদ সংলগ্ন মাঠে জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।

জানাযার নামাজের পূর্বে বক্তব্য রাখেন, মহেশখালী-কুতুবদিয়ার সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিক। বক্তব্য তিনি বলেন,দূর্ঘটনা মাত্রই দূর্ঘটনা। তবে দূর্ঘটনা যেন না ঘটে তা থেকে সবসময় সতর্ক থাকতে হবে। মাতারবাড়ীর ঘটনাটি খুব মর্মাহত। আমি চট্টগ্রাম মেডিকেলে আহতদের দেখতে গিয়েছিলাম, এবং নিহতদের পরিবারকে সরকারি ভাবে সহযোগিতা করার ব্যাবস্থা করা হয়েছে। সাংসদ উপস্থিত সকলকে দূর্ঘটনায় হতাহতদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য আহবান জানান।

কক্সবাজার জেলা পরিষদের সদস্য মাস্টার রুহুল আমিন,মহেশখালী উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি এনামুল হক চৌধুরী রুহুল,মাতারবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাস্টার মোহাম্মদ উল্লাহ,মাতারবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জি এম ছমি উদ্দীন,সাধারণ সম্পাদক এস.এম আবু হায়দার, মাতারবাড়ী ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সভাপতি আব্দুল সত্তার, মাতারবাড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাম্মদ শাহারিয়া সহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি,বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, ছাত্র-শিক্ষক এবং মাতারবাড়ীর হাজার হাজার সাধারণ মানুষ জানাযায়  অংশ গ্রহণ করেন।

গত ২২ জানুয়ারি মাতারবাড়ী ইসলামিয়া আজিজিয়া কাছেমুল উলূম মাদ্রাসার বার্ষিক সভা চালাকালীন মাতারবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বেলুন ফুলানোর গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের ঘটনায়

মাতারবাড়ী দক্ষিণ মিয়াজীর পাড়ার জাহাঙ্গীর আলমের পুত্র আহা খান (১২), বলির পাড়ার আজিজুর রহমানের পুত্র এরশাদুর রহমান  এবং চকরিয়া হারবাং এর বাসিন্দা বেলুন বিক্রেতা মোহাম্মদ জসিম নিহত হয়।

শিরোনাম ছিলো.. "মাতারবাড়িতে গ্যাস সিলিন্ডারে বিস্ফোরণে নিহতদের জানাজায় মানুষের ঢল"

Post a Comment

Iklan Atas Artikel

Iklan Tengah Artikel 1

Iklan Tengah Artikel 2

Iklan Bawah Artikel