আমরা মহেশখালীর কথা বলি..

সাংবাদিক শফিকুল্লাহ খান স্মরণে মহেশখালী প্রেসক্লাবের আয়োজন সম্পন্ন - মহেশখালীর সব খবর

সাংবাদিক শফিকুল্লাহ খান স্মরণে মহেশখালী প্রেসক্লাবের আয়োজন সম্পন্ন


নিউজরুম।। মহেশখালীর প্রবীণ সাংবাদিক ও মহেশখালী প্রেসক্লাবের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা মাওলানা শফিকুল্লাহ খান স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল করেছে মহেশখালী প্রেসক্লাব। আজ বাদজুমা মহেশখালী উপজেলা পরিষদ এলাকায় নিসর্গ বিরামে মহেশখালী প্রেসক্লাবের সভাপতি আবুল বশর পারভেজ এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এম. ছালামত উল্লাহর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন  সাংবাদিক শফিকুল্লাহ খান এর ছোট ভাই আতা উল্লাহ খান।

সংবাদকর্মী কফিল উদ্দিন এর কোরআন তিলাওয়াতের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত আয়োজনে আলোচনা শেষে  দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন মহেশখালী উপজেলা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মোরতাজ আহমদ।

এ সময় সাংবাদিকদের মধ্যে উপস্থিত থেকে আলোচনায় অংশ নেন- মহেশখালী প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি জয়নাল আবেদীন ও হারুনুর রশিদ, আমিনুল হক, সিরাজুল হক সিরাজ, সৈয়দ মোস্তবা আলী, রমজান আলী, আব্দু রশিদ, মকসুদুর রহমান, সরওয়ার কামাল, নুরুল কাদের, হোবাইব সজীব, আবু বক্কর ছিদ্দিক, তারেক আজিজ, রকিয়ত উল্লাহ, সালমান এম রহমান, কফিল উদ্দিন, সাইফুল, কায়ছার হামিদ, ইঞ্জিনিয়ার হাফিজ উদ্দিন ও মফিজ প্রমুখ।


আয়োজনে অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা ছালেহ আহমদ, কবি ও আমাদের নতুন সময় মিডিয়া গ্রুপের ডিসট্রিক্ট এডিটর জাহেদ সরওয়ার, সাংবাদিক শফিকুল্লাহ খানের বড় পুত্র ডা. তৌফিকুল্লাহ।

পরে তারা ছোট মহেশখালীর দক্ষিণ নলবিলা রাহাতজান পাড়া জামে মসজিদ সংলগ্ন কবরস্থানে তাঁর কবর জিয়ারত করেন এবং একই দিন মরহুমের বাড়িতে পারিবারিক ভাবে আয়োজিত  কুলখানির ও মেজবানে অংশ গ্রহণ করেন।

প্রসঙ্গতঃ প্রয়াত সাংবাদিক মাওলানা শফিকুল্লাহ খান ছিলেন মহেশখালীর সাংবাদিকদের পথ প্রদর্শক, তিনি মহেশখালী প্রেসক্লাবের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন, তিনি একজন হাফেজে কোরআন। পাশাপাশি মৃত্যুর আগ পর্যন্ত চট্টগ্রামে অবস্থিত আবদুর রাজ্জাক কারিগরি মাদ্রাসার পরিচালক এর দায়িত্ব পালন করেন। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি অত্যন্ত সরল, সদালাপী ও বন্ধুবৎসল ছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে মহেশখালীর সাংবাদিকগণ একজন অকৃত্রিম বন্ধুকে হারালো -বলেন বক্তারা।

No comments

Powered by Blogger.