আমরা মহেশখালীর কথা বলি..

মহেশখালীর ৭ সহ ১১ বিদ্রোহী প্রার্থীকে সাময়িক বহিস্কার করলো কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগ - মহেশখালীর সব খবর

মহেশখালীর ৭ সহ ১১ বিদ্রোহী প্রার্থীকে সাময়িক বহিস্কার করলো কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগ





সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।। ২০ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিতব্য কক্সবাজার জেলার ১৫টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভার নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে নির্বাচনে অংশ নেয়ায় মহেশখালীর ৮ জনসহ জেলার ১৩ জনকে দল থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করেছে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগ। এদের মধ্যে ১১ জন নির্বাচনে লড়াই করছেন। 

বুধবার বেলা ১২ টায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রিয় নির্বাহী সংসদের নির্দেশনা মোতাবেক দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে নির্বাচনে অংশ নেয়ায় তাদেরকে সাময়িকভাবে বহিস্কার করা হয়েছে বলে সংবাদবিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান। 

বহিস্কৃত বিদ্রোহী প্রার্থীরা হলেন- মহেশখালী উপজেলার কুতুবজোম ইউনিয়নের মোশারফ হোসেন খোকন, মাতারবাড়ী ইউনিয়নের এনামুল হক রুহুল, মাষ্টার মোহাম্মদ উল্লাহ, মাষ্টার রুহুল আমিন, আবদুস সাত্তার, হোয়ানক ইউনিয়নের মীর কাসেম চৌধুরী, ওয়াজেদ আলী মুরাদ, কুতুবদিয়া উপজেলার উত্তর ধুরুং ইউনিয়নের সিরাজদৌল্লাহ, টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের বিদ্রোহী প্রার্থী নুর হোসেন, হ্নীলা ইউনিয়নের কামাল উদ্দিন আহমদ, পেকুয়া উপজেলার টইটং ইউনিয়নের মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ বিএ.

এছাড়া দলীয় প্রার্থীর বিপক্ষে গিয়ে ছেলে শাহাজাহানের পক্ষে প্রচারনা চালানোর কারণে টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আলম মহেশখালীর হোয়ানক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক জাফর আলম জহুর কেও সাময়িক ভাবে বহিস্কার করা হয়েছে।

কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এম.এ. মনজুর স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তাদেরকে চুড়ান্ত ভাবে কেন বহিস্কার করা হবে না তা আগামী ১৭ সেপ্টেম্বর  এর মধ্যে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে। অন্যথায় তাদের চুড়ান্ত ভাবে বহিস্কারের জন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ বরাবরে সুপারিশ পাঠানো হবে বলেও নিশ্চিত করেছেন এম.এ. মনজুর ।


No comments

Powered by Blogger.