আমরা মহেশখালীর কথা বলি..

বড় মহেশখালীতে কৃষিপণ্য বিপনন অফিসে হামলা ও লুটপাটের অভিযোগ - মহেশখালীর সব খবর

বড় মহেশখালীতে কৃষিপণ্য বিপনন অফিসে হামলা ও লুটপাটের অভিযোগ


নিজস্ব প্রতিবেদক।।
বড় মহেশখালীতে কয়েকজন চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ডাকাতিয়া স্টাইলে কৃষিপণ্য বিপনন মহেশখালী শাখায় ভাংচুর চালিয়ে মালামালসহ ১৫ লাখ টাকা লুট করে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। গত ২৩ ডিসেম্বর দুপুর আড়াইটার দিকে বড় মহেশখালী শাখায় এ ভাংচুর ও লুটের ঘটনা ঘটে বলে দাবি মহেশখালী উপজেলা সর্বস্তরের কৃষি কৃষিপণ্য উৎপাদন বিপনন ও পান চাষী সমবায় সমিতি লিমিটেডের। লুপাট হওয়া সংগঠন থেকে লুটপাট ও ভাংচুরের দুটি সিসিটিভি ফুটেজ গণমাধ্যমে দেওয়া হয়েছে ইতোমধ্যে।

এদিকে এ ঘটনার পরদিনই মহেশখালী থানায় একই এলাকা (ছোট কুলাল পাড়ার) মোহাম্মদ নেছারকে (৪২) প্রধান আসামি করে মোহাম্মদ আনচার (৩৮), মিজানুর রহমান (২১), নুরুল আবছার (৩৬), আব্দুল হক (৫০), জাহেদ হাসান খালেক (২০), পলাশ উদ্দিন জয়নাল (৫৩), মোহাম্মদ ফারুক (২৬), মোমেনা বেগম (পাখি) (৪০), জাইতুন নাহার (৪২), রহিমা বেগম (৪০)-সহ আরও ১০/১২ অজ্ঞাত দেখিয়ে এজহার দায়ের করেছে সংগঠনটি।

সংগঠনটির নেতাদের দাবি, উপরোল্লিখিত সন্ত্রাসীরা ছোট কুলাল পাড়াস্থ সংগঠনের অফিসে এসে গোপনে তথ্য সংগ্রহ করত প্রথমে, এরপর সংগঠনটির অভ্যন্তরীণ আলোচনার বিষয়ে সন্ত্রাসীরা জ্ঞাত হলে পরবর্তী প্রকাশ্যে এসে চাঁদা দাবি করা শুরু করে। পরে সে চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানানোর কারণেই মূলতঃ এ ভাংচুর ও লুটপাট চালানো হয়।

নেতারা গনমাধ্যমকে বলছেন, এজহার দায়েরের এতোদিনেও কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে। এজাহারের তদন্তে পুলিশের গড়িমসি হচ্ছে বলেও দাবি করেন তারা।

No comments

Powered by Blogger.