রিও অলিম্পিকে দারুণ এক ইতিহাস গড়েছেন ক্রিস্টিন আর্মস্ট্রং। টানা তিন আসরে সাইক্লিংয়ে মেয়েদের টাইম ট্রায়ালে স্বর্ণ জিতেছেন যুক্তরাস্ট্রের এই অ্যাথলেট।

রিওতে সবচেয়ে কম ৪৪ মিনিট ২৬.৪২ সেকেন্ড সময় নিয়ে ২৯.৭ কিলোমিটারের কোর্স শেষ করা আর্মস্ট্রংয়ের কীর্তি আরও বড় হয়ে যাচ্ছে তার বয়সের কারণে। দুই দফা অবসর ভেঙে অলিম্পিকে তৃতীয় স্বর্ণপদক তিনি জিতেছেন ৪৩তম জন্মদিনের আগের দিন। দারুণ এই প্রাপ্তি দিয়েই ১১ আগস্ট জন্মদিন পালন করেন আর্মস্ট্রং।

২০০৮ বেইজিং অলিম্পিকে স্বর্ণ জয়ের পর অবসর নেন আর্মস্ট্রং। অবসর ভেঙে ২০১২ লন্ডন অলিম্পিকে সোনা জিতে ফের সাইক্লিংকে বিদায় বলে দেন তিনি। ২০১৫ সালে আর্মস্ট্রং আবারও ফিরে আসেন। স্বর্ণপদক জয়ের পর আনন্দাশ্র“ ধরে রাখতে পারেননি আর্মস্ট্রং। পাঁচ বছর বয়সী ছেলে তাকে জিজ্ঞেস করে, ‘মা তুমি কাঁদছ কেন?’ তিনি বলেন, ‘পাঁচ বছর বয়সী ছেলের কাছ থেকে এটা দারুণ একটা প্রশ্ন। আমি কেন কাঁদছি? আমি কাঁদছি, কারণ আমরা যখন সুখী হই, তখনও কাঁদি। একটু পরে ছেলেকে কান্নার কারণটা ব্যাখ্যা করতে হবে।’ রাশিয়ার জাবেলিনসকায়া ওলেগা ৪৪ মিনিট ৩১.৯৭ সেকেন্ড সময় নিয়ে রুপা ও নেদারল্যান্ডসের আন্না ভ্যান ডার ব্রেগেন ৪৪ মিনিট ৩৭.৮০ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ পেয়েছেন।

পুরুষ টাইম ট্রায়ালের স্বর্ণ জিতেছেন সুইজারল্যান্ডের কানসেলারা ফাবিয়ান। ২০০৮ বেইজিং অলিম্পিকে সোনা জেতা এই সাইক্লিস্টের ৫৪.৫ কিলোমিটারের কোর্স শেষ করতে সময় লাগে ১ ঘণ্টা ১২.১৫ মিনিট। নেদারল্যান্ডসের টম ডুমোউলিন রুপা ও ট্যুর দ্য ফ্রান্সজয়ী যুক্তরাজ্যের ক্রিস ফ্রুম ব্রোঞ্জ পেয়েছেন। ওয়েবসাইট।
শেয়ার:

মন্তব্য দিন: