ইপসার উদ্যোগে সাংবাদিকদের সাথে উগ্রবাদ ও সহিংসতা প্রতিরোধ বিষয়ক ওরিয়েন্টেশন সভা


এম.বশির উল্রাহ।।

গত ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ইং তারিখে স্থায়িত্বশীল উন্নয়নের জন্য সংগঠন ইপসার উদ্যোগে জনগনের সামাজিক সম্পৃক্ততার মাধ্যমে উগ্রবাদ ও সহিংসতা প্রতিরোধ (সিভিক) প্রকল্পের আওতায় এবং দাতা সংস্থা জিসিইআরএফ এর আর্থিক সহায়তায় স্থানীয় সাংবাদিকদের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন মহেশখালী থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) নুরুল ইসলাম মজুমদার। ওরিয়েন্টেশনে স্বাগত বক্তব্য ও ওরিয়েন্টেশনের উদ্দেশ্য উপস্থাপন করেন ইপসা মহেশখালী উপজেলার ফোকাল পার্সন এম, আজিজুল হক।
ইপসা সিভিক প্রকল্প সম্পর্কে ধারণা উপস্থাপন করেন প্রকল্প সমন্বয়কারী ( ট্রেনিং এন্ড ক্যাম্পেইন) নাজমুল বরাত রনি। তিনি উগ্রবাদ ও সহিংসতার ধরন,ক্ষতিকর দিক, বৃদ্ধির কারণ , ঝুঁকিপূর্ণ পরিস্থিতি ও জনগোষ্ঠী সম্পর্কে ধারণা প্রদান করেন। এরপর তিনি মুক্ত আলোচনায় উপস্থিত সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। তিনি সাংবাদিকদের অনুরোধ জানান মাসে অন্তত একটি হলেও উগ্রবাদ ও সহিংসতার বিভিন্ন সংবাদের পাশাপাশি সচেতনতামূলক সংবাদ প্রচারের জন্য। প্রধান অতিথি বলেন- সাংবাদিকদের আমরা কলম সৈনিক বলে থাকি এবং আপনারা হলেন সমাজের দর্পন। উগ্রবাদ ও সহিংসতা নিরসনে প্রশাসনের পাশাপাশি আপনাদের সচেতনতামূলক লেখনি যুব সমাজকে ও উঠতি বয়সের তরুণ তরুণীকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করবে। তিনি জানান উখিয়া থাকাকালীন সময়ে ইপসার কর্মকান্ডের সাথে তিনি পরিচিত। রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ও স্থানীয় কমিউনিটিতে ইপসা অনেক ধরনের প্রকল্প বাস্তবায়ন করে আসছে। মহেশখালীতে জনগণের সামাজিক সম্পৃক্ততায় উগ্রবাদ ও সহিংসতা প্রতিরোধ প্রকল্প আমার কাছে অত্যন্ত প্রশংসনীয় মনে হচ্ছে। এ কাজের সাথে সাংবাদিকদের অন্তর্ভুক্তি কাজের গতিশীলতার পাশাপাশি এলাকায় বিভিন্ন ধরনের অসামাজিক ও অনৈতিক কর্মকান্ড হ্রাস পাবে বলে আমার বিশ^াস। ওরিয়েন্ট্শেন সুচারুরূপে সম্পন্ন করতে সহায়তা করেন উপজেলা ম্যানেজার মো: আজগর হোসের চৌধুরী এবং এফ.এফ হুমায়ুন কবীর ও চাইলু মারমা, সভায় মহেশখালী উপজেলার সকল সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।

Post a Comment

Previous Post Next Post