আমরা মহেশখালীর কথা বলি..

মহেশখালীতে করোনা টিকা নিতে শিক্ষার্থীদের উপচে পড়া ভিড়, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি (ভিডিও) - মহেশখালীর সব খবর

মহেশখালীতে করোনা টিকা নিতে শিক্ষার্থীদের উপচে পড়া ভিড়, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি (ভিডিও)


নিজস্ব প্রতিবেদক।।
  ১২ থেকে ১৮ বয়সের শিক্ষার্থীরা করোনা ভেকসিন নিতে উপচে পড়া ভিড় জমেছে মহেশখালীতে। নানা অব্যবস্থাপনার ভেতর দিয়ে স্বাস্থ্যবিধি ও শৃঙ্খলা না মেনেই দেওয়া হচ্ছে টিকা । এনিয়েও উপজেলা প্রশাসন, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তেমন তদারকি নেই বললেই চলে।

মহেশখালীতে টিকা নিতে শিক্ষার্থীদের ভীড়, নাই স্বাস্থ্যবিধি ও শৃঙ্খলা।। শঙ্কিত শিক্ষার্থীরা।।

Posted by moheshkhalirsobkhabor.com on Sunday, January 9, 2022
৮ জানুয়ারি শনিবার সকাল ৯টা থেকে মহেশখালীতে দুইটি কেন্দ্রে ৪ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৪,৩০০জন শিক্ষার্থীকে টিকা দেওয়ার কার্যক্রম শুরু হয়।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মহেশখালী উপজেলা হল রুমে ২ হাজরের অধিক (সংখ্যা সংশ্লিষ্ট সূত্রের) শিক্ষার্থী সকাল ৮ টা থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে টিকা নিতে দেখা যায়। তাদের মুখে মাস্ক নেই, নেই কোনো সামাজিক দুরত্বও। লাইনে গাদাগাদি করে কার আগে কে টিকা নিবে এ নিয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যেও হট্টগোলও দেখা দেয়।

টিকা নিতে আসা কয়েকজন শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, সকাল ৮টা থেকে ১১টা পর্যন্ত লাইনে দাঁড়িয়ে থেকেও টিকা নিতে পারেনি বলে জানায় তারা।  মহেশখালী আর্দশ উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র সাইফুল ইসলাম ক্ষোভ প্রকাশ করে বলে, টিকা নিতে এসে দেখি অনেক ভিড়, স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না। লাইনে দাঁড়িয়ে অনেক ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে।

এরকম আরও কয়েকজন ছাত্র-ছাত্রী অভিযোগ করে বলেন, ছাত্র-ছাত্রী বেশি হওয়ায় টিকা নেওয়ার কেন্দ্র আরও বাড়াতে পারতো। এখন টিকা কেন্দ্র সীমিত হওয়ায় স্বাস্থ্যবিধি মান সম্ভব হচ্ছে না। এবিষয় গুলো সংশ্লিষ্টদের নজরে থাকা দরকার।

একাধিক সূত্র জানিয়েছে -করোনার মতো স্পর্শকাতর ইস্যুতে টিকা দেওয়ার এমন বড় আয়োজনে ছিলো না সংশ্লিষ্টদের তদারকি। উপজেলা প্রশাসন, হাসপাতাল ও থানা পুলিশের কোনো তৎপরতা ছিলো না শৃঙ্খলা রক্ষায়। এ অবস্থায় সংক্রমণের বেশ ঝুঁকির ভেতরেই টিকা দেওয়ার আয়োজন হলো। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভিত্তিক স্কাউটস দলকে শৃঙ্খলার কাজে লাগানো যেতো বলে মত দেন অনেকেই।

এদিকে ছাত্র-ছাত্রীদের সংখ্যা বেশি হলেও ফাইজারের টিকা শীততাপ নিয়ন্ত্রিত কক্ষেই টিকা সংরক্ষণ করে টিকা দিতে হয় বলে কিছুটা হিমসিম অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছেন মহেশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাহাফুজুল হক। তিনি বলেন- লোকবল সংকট হলেও আমাদের স্বাস্থ্যকর্মীরা সাধ্যমতো সেবা দিয়ে যাচ্ছে অনবিররত।

মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) সাইফুল ইসলাম জানান -নির্দেশনা পাওয়ার পর খুব কম সময়ের মধ্যেই এ টিকাদান কার্যক্রমের আয়োজন করা হয়েছে। প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তাদের অনেকই কর্ম এলাকায় না থাকায় কিছুট বেগ পেতে হচ্ছে বলে জানান তিনি।

No comments

Powered by Blogger.